× প্রচ্ছদ পাবনা-৪ উপনির্বাচন ঈশ্বরদী পাবনা জাতীয় রাজনীতি আন্তর্জাতিক শিক্ষাজ্ঞন বিনোদন খেলাধূলা বিজ্ঞান-প্রযুক্তি নির্বাচন কলাম ছবি ভিডিও রূপপুর এনপিপি
Smiley face করোনা ঈশ্বরদী পাবনা বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক খেলা প্রযুক্তি বিনোদন শিক্ষা



পাবনায় বন্ধুদের নিয়ে শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে স্ত্রীকে হত্যা

পাবনায় বৃষ্টি খাতুন (১৮) নামে এক গৃহবধূ স্বামীর ছুরিকাঘাতে খুন হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শনিবার সকালে সদর উপজেলার মালিগাছা ইউনিয়নের ক্ষুদ্র মাটিয়াবাড়ি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
নিহত বৃষ্টি খাতুন ক্ষুদ্র মাটিয়াবাড়ি গ্রামের জালাল বিশ্বাসের মেয়ে। তার স্বামীর রাম মোমিন হোসেন (২৫)।
পাবনা সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওবাইদুল হক নিহতের স্বজনদের বরাত দিয়ে জানান, প্রায় ৩ বছর আগে পাবনা শহরতলীর নয়নামতি মহল্লার বাসিন্দা আলাই বিশ্বাসের ছেলে মোমিন হোসেনের সঙ্গে বৃষ্টির বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই মোমিন বৃষ্টির ওপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করে আসছিলেন। নির্যাতন সইতে না পেরে বছর খানেক আগে ক্ষুদ্র মাটিয়াবাড়ি গ্রামে বাবার বাড়িতে চলে আসেন বৃষ্টি। কিন্ত মাঝে মধ্যে বৃষ্টিকে বাবার বাড়ি থেকে নিয়ে যাওয়ার জন্য নানা কৌশল অবলম্বন করতেন মোমিন। এ নিয়ে একাধিকবার গ্রাম্য বৈঠকও হয়। তবে এতে সফল না হওয়ায় ক্ষিপ্ত ছিলেন মোমিন।
এরই ধারাবহিকতায় শনিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে একটি প্রাইভেটকারে করে কয়েকজন বন্ধুকে সঙ্গে নিয়ে বৃষ্টির বাবার বাড়িতে যান মোমিন। এ সময় বৃষ্টিকে একা পেয়ে ছুরিকাঘাত করে দলবলসহ পালিয়ে যান তিনি। স্থানীয়রা আহত বৃষ্টিকে দ্রুত উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। কিন্তু তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় পাবনা জেনারেল হাসাপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেয়ার পরামর্শ দেন। পরে একটি অ্যাম্বুলেন্সে করে ঢাকায় নেয়ার পথে বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে মারা যান বৃষ্টি। এ ঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে বলে ওসি জানান।

কোন মন্তব্য নেই