× প্রচ্ছদ পাবনা-৪ উপনির্বাচন ঈশ্বরদী পাবনা জাতীয় রাজনীতি আন্তর্জাতিক শিক্ষাজ্ঞন বিনোদন খেলাধূলা বিজ্ঞান-প্রযুক্তি নির্বাচন কলাম ছবি ভিডিও রূপপুর এনপিপি
Smiley face করোনা ঈশ্বরদী পাবনা বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক খেলা প্রযুক্তি বিনোদন শিক্ষা



ঈশ্বরদীতে হত্যা মামলায় মা ও ছেলে আটক,স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী


 
ইতিহাস টুয়েন্টিফোর প্রতিবেদকঃ
ঈশ্বরদীতে মামীকে অনৈতিক প্রস্তাবের কারণে গভীর রাতে যুবককে হত্যা করে ফেলে রাখার ঘটনায় পুলিশ মামি ও তার ছেলেকে আটক করেছেসোমবার দুপুরে আটকের পর সন্ধ্যায় আদালতে হাজির করা হলে তারা স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি দিয়েছে বলে থানার ওসি বাহাউদ্দিন ফারুকী নিশ্চিত করেছেন

ঈশ্বরদী চকনারিচা বাগবাড়িয়া এলাকা হতে গত ২৬ মে সাকিব (২১) নামে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করে পুলিশএ ঘটনায় ঈশ্বরদী থানায় সন্দেহমূলকভাবে উল্লেখিতদের নামে হত্যা মামলা দায়ের হয়এই হত্যা মামলায় এস আই অসিত কুমার বসাককে তদন্তকারী কর্মকর্তা নিযুক্ত করা হয়এসআই অসিত সোমবার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জহুরুল হক, ওসির নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে অরনকোলা এলাকা থেকে আসামীদের গ্রেফতার করেআসামীরা চকনারিচা বাগবাড়ীয়া গ্রামের মিলন আলীর স্ত্রী বিলকিছ আক্তার বানু (৩৮) ও তার ছেলে বিল্পব হোসেন(১৮)পুলিশী জিজ্ঞাসাবাদে তারা হত্যার দায় স্বীকার করে এবং আদালতেও নিজেদের দোষ স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে বলে জানায় পুলিশ

স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে জানা যায়, নিহত সাকিব প্রায়ই আপন মামী বিলকিছ আক্তার বানুকে অনৈতিক প্রস্তাব দিয়ে আসছিল এরই সূত্র ধরে গত ২৫মে রাতে সাকিব তার মামী বিলকিছ আক্তার বানুর বাড়িতে যায়   মামী ঘরের দরজা খুললে সাকিব মামীকে খারাপ কাজ করার প্রস্তাব দিলে সে রাজী না হলে তাদের মধ্যে ধস্তাধস্তি শুরু হয় এসময় বিলকিছ তার ছেলে বিপ্লবকে ডাকেডাক শুনে পাশের ঘর হতে বিপ্লব আরো ৪/৫ জনকে ডেকে নিয়ে আসেপরে সকলে মিলে বালিশ চাপা দিয়ে সাকিবকে শ্বাসরোধ করে মেরে ফেলেগভীর রাতে লাশ পাশের বাড়ির  সাখাওয়াতের  বাগানে ফেলে পালিয়ে যায়

 মামলার অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে বলে পুলিশ জানিয়েছে

কোন মন্তব্য নেই