× প্রচ্ছদ পাবনা-৪ উপনির্বাচন ঈশ্বরদী পাবনা জাতীয় রাজনীতি আন্তর্জাতিক শিক্ষাজ্ঞন বিনোদন খেলাধূলা বিজ্ঞান-প্রযুক্তি নির্বাচন কলাম ছবি ভিডিও রূপপুর এনপিপি
Smiley face করোনা ঈশ্বরদী পাবনা বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক খেলা প্রযুক্তি বিনোদন শিক্ষা



ঈশ্বরদীতে দুধে ঘুমের ঔষুধ মিশিয়ে চুরির চেষ্টা, হাসপাতালে দুইজন ভর্তি

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ফজলুর রহমান। 

ইতিহাস টুয়েন্টিফোর প্রতিবেদকঃ
অভিনব কৌশলে দুধের মধ্যে ঘুমের ঔষুধ  মিশিয়ে চুরি করতে ঘরে ঢুকে ব্যর্থ হয়েছে চোরদল। তবে ঔষুধ মেশানো দুধ পান করে অচেতন হয়ে পড়ে হাসপাতালে   ভর্তি   হয়েছেন   বাড়ির   মালিক   ও   তার   স্ত্রী।   গতকাল(বৃহস্পতিবার)  দিবাগত  ভোরে ঈশ্বরদীর   ছলিমপুর  ইউনিয়নের  বড়ইচারার ঈদগা এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। অসুস্থ্যরা হলেন ঈশ্বরদী ধান চাউল মিল মালিক   গ্রুপের   সভাপতি   ফজলুর   রহমান   মালিথা   ও   তাঁর   স্ত্রী   পারছিনা বেগম। 

অসুস্থ্য ফজলুর রহমানের ছোট ভাইয়ের মেয়ে প্রাপ্তি জানান, বুধবার রাতে জানালার ধারের গ্যাসের চুলায় তার বড় মা (বড় চাচী) পারছিনা বেগম দুধজাল করতে  ছিলেন।  কোন এক   সময় পরিকল্পিতভাবে  চোরের  দল সেই   দুধে ঘুমের ঔষুধ মিশিয়ে দেয়। সেহরির সময় সেই দুধ দিয়ে বড় আব্বা (বড়চাচা) ও বড় মা ভাত খান। এরপরই বড় আব্বা ঘুমে অচেতন হয়ে যান। বড় মা দুধ কম খাওয়ায় কিছুটা পড়ে অচেতন হয়ে পড়েন। এর মধ্যে দুইজন চোর ঘরে প্রবেশ করে মালামাল চুরি করার চেষ্টা করে। কিন্তু বড়মার চিৎকারে চোরেরা তখন বড়মার গলা থেকে সোনার চেইনটি ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়।তিনি আরও বলেন, চিৎকার শুনে আশেপাশের লোকজন অচেতন অবস্থায় দুজনকেউদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসক (আরএমও) ডাক্তারশফিকুল ইসলাম শামীম জানান, অতিরিক্ত মাত্রায় ঘুমের ঔষুধের কারণে তাঁরা গভীর ঘুমে অচেতন হয়ে পড়েছিলেন। স্যালাইন দেওয়া হয়েছে। আস্তে আস্তে ঠিক হয়ে যাবে। 

ঈশ্বরদী  থানার   দায়িত্বরত   কর্মকর্তা   পুলিশের   উপ   সহকারী   পরিদর্শক(এএসআই)   রনি   আক্তার   জানান,   খবর   পেয়ে   ঘটনাস্থলে   পুলিশ   পরিদর্শন করেছে। তবে কোন অভিযোগ এখনও হাতে আসেনি।

কোন মন্তব্য নেই