× প্রচ্ছদ পাবনা-৪ উপনির্বাচন ঈশ্বরদী পাবনা জাতীয় রাজনীতি আন্তর্জাতিক শিক্ষাজ্ঞন বিনোদন খেলাধূলা বিজ্ঞান-প্রযুক্তি নির্বাচন কলাম ছবি ভিডিও রূপপুর এনপিপি
Smiley face করোনা ঈশ্বরদী পাবনা বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক খেলা প্রযুক্তি বিনোদন শিক্ষা



ঢাকাকে বাঁচাতে সব ছেড়ে নির্বাচনে নেমেছি: তাপস

‘যে কারও রাজনৈতিক জীবনে বড় অর্জন সাংসদ হওয়া। সেই পদ থেকে পদত্যাগ করেছি। মেয়র হলে আইন পেশা ও ব্যবসা ছেড়ে দিতে হবে। আমাদের প্রাণের ঢাকাকে বাঁচাতেই সব ছেড়ে নির্বাচনে নেমেছি। ব্যর্থ হতে আসিনি।’

কথাগুলো বলেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী শেখ ফজলে নূর তাপস। তিনি বলেছেন, ‘আগামী ১ ফেব্রুয়ারি সবার সমর্থনে মেয়র নির্বাচিত হলে অবশ্যই উন্নত রাজধানী গড়ে তুলব।’

আজ বুধবার পুরান ঢাকার কারা কনভেনশন সেন্টারে সম্মিলিত ব্যবসায়ী পরিষদ আয়োজিত ‘ব্যবসায়ী সম্মেলন ২০২০’–এ এমন ঘোষণা দেন শেখ ফজলে নূর।

মেয়র নির্বাচিত হলে আয় বাড়িয়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনকে (ডিএসসিসি) স্বয়ংসম্পূর্ণ করা হবে বলেও ঘোষণা দেন শেখ ফজলে নূর। তিনি বলেন, নানা খাতে আয় বাড়ানো হবে। তবে কোনো ক্ষেত্রে নাগরিকদের জন্য হোল্ডিং ট্যাক্স বা কর বাড়ানো হবে না; বরং সমন্বয়ের মাধ্যমে কোনো কোনো ক্ষেত্রে কর কমতে পারে।

তাপস বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আফসোস করে বলেন, ৬০ হাজার কোটি টাকার বাজেট, পাঁচ লাখ কোটি টাকায় নিয়েছেন। কিন্তু প্রকল্পের টাকা উইপোকারা খেয়ে ফেলে। মেয়র নির্বাচিত হলে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন দুর্নীতিমুক্ত সংস্থা হিসেবে গড়ে তোলা হবে। এখানে কোনো উইপোকার জায়গা হবে না।

নির্বাচন সামনে রেখে নিজের পাঁচ ধাপের উন্নয়ন পরিকল্পনার কথা তুলে ধরে শেখ ফজলে নূর বলেন, এটি কোনো অসম্ভব স্বপ্ন নয়, বাস্তবিক পরিকল্পনা। সব ভেবেই এসব পরিকল্পনা ঠিক করা হয়েছে। মেয়র নির্বাচিত হলে ৯০ দিনের মধ্যে নাগরিকের সব মৌলিক সুবিধা নিশ্চিত করে ৩০ বছরের দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা তৈরি করা হবে। এর মধ্য দিয়েই তৈরি হবে ঐতিহ্যের ঢাকা, সুন্দর ঢাকা, সচল ঢাকা, সুশাসিত ঢাকা ও উন্নত ঢাকা। এর কোনো ব্যত্যয় হবে না। দূষণ রোধ করে সুপেয় পানির ব্যবস্থা করা হবে। ঢাকার দুই নদীর প্রবাহ নিশ্চিত করে দুই পাড় মনোরম করে গড়ে তোলা হবে।

শেখ ফজলে নূর বলেন, ‘যানজট নিরসনে বিভিন্ন উদ্যোগ নেব। ঢাকার যাতায়াতব্যবস্থা ঢেলে সাজাব। সড়কগুলো কার্যকর এবং উন্নত হবে। কিছু সড়কে ধীরগতির যানবাহন চলবে, অন্য সড়কে দ্রুতগতির যানবাহন চলবে। কোনো সড়কে মানুষ হেঁটে চলাচল করবে, আবার কোনো সড়কে ঘোড়ার গাড়ি চলবে। পৃথিবীর কোথাও এক সড়কে সব ধরনের যানবাহন চলাচল করে না। একটি সমন্বয় দরকার, একটি সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা দরকার।’

ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে ঢাকা দক্ষিণে নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী বলেন, ‘ব্যবসায়ীরা লিখিতভাবে মাত্র ২৮টি সমস্যা জানিয়েছেন। আমি তো ৮০০ সমস্যা আশা করেছিলাম। এসব নিয়ে মোটেই বিচলিত নই। ঢাকা দক্ষিণ সিটি হবে ব্যবসাবান্ধব। পাঁচ কর্মদিবসের মধ্যে ট্রেড লাইসেন্স পাবেন ব্যবসায়ীরা। ব্যবসায়ীদের জন্য আলাদা একটি হেল্পডেস্ক করে দেওয়া হবে নগর ভবনে।’

ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিমের সভাপতিত্বে ব্যবসায়ী সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন সংগঠনটির সাবেক সভাপতি কাজী আকরাম উদ্দিন আহমেদ, এ কে আজাদ, শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন, তৈরি পোশাক খাতের ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন বিজিএমইএর সাবেক সভাপতি আনোয়ারুল আলম চৌধুরী পারভেজ, সিদ্দিকুর রহমান প্রমুখ।

এ অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে ১৩তম দিনের নির্বাচনী প্রচার শুরু করেন শেখ ফজলে নূর। এখান থেকে বের হয়ে বিকেলে তিনি হাজারীবাগ এলাকায় জনসংযোগ করেন।

কোন মন্তব্য নেই