× প্রচ্ছদ পাবনা-৪ উপনির্বাচন ঈশ্বরদী পাবনা জাতীয় রাজনীতি আন্তর্জাতিক শিক্ষাজ্ঞন বিনোদন খেলাধূলা বিজ্ঞান-প্রযুক্তি নির্বাচন কলাম ছবি ভিডিও রূপপুর এনপিপি
Smiley face করোনা ঈশ্বরদী পাবনা বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক খেলা প্রযুক্তি বিনোদন শিক্ষা



রসাটমের উদ্যোগে রাজশাহী বিভাগের বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের জন্য অনুষ্ঠিত হচ্ছে বিজ্ঞান অলিম্পিয়াড

ইতিহাস টুয়েন্টিফোর প্রতিবেদক-
বাংলাদেশে বিজ্ঞান শিক্ষার প্রসার এবং এর জনপ্রিয়তা বৃদ্ধির লক্ষ্যে রুশ রাষ্ট্রীয় পারমাণবিক শক্তি কর্পোরেশন রসাটমের উদ্যোগে রাজশাহী বিভাগে অবস্থিত বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর শিক্ষার্থীদের জন্য আয়োজন করা হয়েছে ‘প্রেসাইজ এনার্জি’ শীর্ষক বিজ্ঞান অলিম্পিয়াড। রাজশাহী বিভাগের পাবনা জেলার ঈশ্বরদীর রূপপুরে দেশের প্রথম পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মীত হওয়ার কারণে প্রথম বারের মতো এই অঞ্চলটিকে জাতীয় অলিম্পিয়াডের জন্য রসাটম বাছাই করেছে। রসাটমের বাংলাদেশীয় গণমাধ্যম প্রতিনিধি ও রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প কর্তৃপক্ষ এই তথ্য নিশ্চিত করেছে। 

জানা যায়, দু’টি ধাপে অনুষ্ঠিতব্য এই অলিম্পিয়াডের প্রাথমিক ধাপ আগামী ২০-২৪ ফেব্রুয়ারি।  পর্যায়ক্রমে পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া ইসলামিক বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় এবং রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হবে। প্রাথমিক ধাপে গণিত, পদার্থবিদ্যা ও রসায়ন শাস্ত্রের মৌলিক বিষয়ের উপর অংশগ্রহনকারীদের জ্ঞানের পরিধি যাচাই-বাছাই করে পরবর্তী ধাপের জন্য ১৬০ জনকে নির্বাচিত করা হবে। নির্বাচিতরা তাদের পছন্দ অনুসারে গনিত, পদার্থবিদ্যা ও রসায়ন শাস্ত্রের মধ্যে যে কোন একটি বিষয়ে ৩ ঘন্টাব্যাপী লিখিত পরীক্ষায় অংশ নেবেন। 

দ্বিতীয় ধাপ আগামী ২৬, ২৭ ও ২৮ ফেব্রুয়ারি রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্প এলাকা ঈশ্বরদী শহরে অনুষ্ঠিত হবে। ২৮ ফেব্রæয়ারি বিকেলে ঈশ্বরদী শহরে অংশগ্রহনকারীদের উপস্থিতিতে সমাপনি অনুষ্ঠিত হবে। অনুষ্ঠানে আয়োজক প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতিনিধিবৃন্দ, স্থানীয় প্রশাসন ও মিডিয়া প্রতিনিধিবৃন্দ উপস্থিত থাকবেন বলে জানা গেছে। 

রসাটমের পক্ষ হতে মার্চে ঢাকায় আয়োজিত একটি বিশেষ অনুষ্ঠানে প্রতিটি বিষয়ে বিজয়ীদের আকর্ষনীয় পুরষ্কার প্রদানের সাথে সাথে রাশিয়াতে সপ্তাহব্যাপী শিক্ষা সফরের ব্যবস্থা থাকবে। 
প্রসঙ্গত: রাশিয়ার আর্থিক ও কারিগরি সহায়তায় ঈশ্বরদীর রূপপুরে বাংলাদেশের প্রথম পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মীত হচ্ছে। বিদ্যুৎ কেন্দ্রটিতে প্রতিটি ১২০০ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন দু’টি ইউনিট থাকবে। বিদ্যুৎ ইউনিট নির্মাণে ব্যবহৃত হচ্ছে সর্বাধুনিক ৩+ প্রজন্মের রুশ ভিভিইআর-১২০০ রিয়্যাক্টর।

কোন মন্তব্য নেই