× প্রচ্ছদ পাবনা-৪ উপনির্বাচন ঈশ্বরদী পাবনা জাতীয় রাজনীতি আন্তর্জাতিক শিক্ষাজ্ঞন বিনোদন খেলাধূলা বিজ্ঞান-প্রযুক্তি নির্বাচন কলাম ছবি ভিডিও রূপপুর এনপিপি
Smiley face করোনা ঈশ্বরদী পাবনা বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক খেলা প্রযুক্তি বিনোদন শিক্ষা



আইপিএল পেছাবে না করোনা–আতঙ্কে

এখন পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে ৮৫টিরও বেশি দেশে ৯৫ হাজারেরও বেশি মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত। এর বেশির ভাগই চীনে। করোনার প্রভাবে জীবনযাত্রা থমকে গেছে ইতালি আর ইরানেও। এখন পর্যন্ত চীনেই মারা গেছেন ৩ হাজার ১৫ জন। বিশ্বের অন্যান্য দেশে আরও ২৬৭ জন, যার বেশির ভাগই ইতালি-ইরানে।

করোনাভাইরাস বিশ্বজুড়ে কতটা ভয়ের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে, তা আর নতুন করে বলার কিছু নেই। ভারতেও হানা দিয়েছে প্রাণঘাতী রোগটি। এখন পর্যন্ত দেশটিতে ৩১ জন আক্রান্ত, যার মধ্যে অবশ্য ১৬ জন ইতালিয়ান পর্যটক। করোনার প্রভাব মানুষের জীবনযাত্রাই যেখানে থমকে দিচ্ছে, খেলাধুলা সেখানে আর কি ছার! বিশ্বজুড়ে একের পর এক খেলার টুর্নামেন্ট থেমে যাচ্ছে। ভারতে করোনার প্রভাব পড়তে শুরু করেছে বলেই আলোচনায় আসছে আরেকটি টুর্নামেন্টের প্রসঙ্গও—আইপিএল!

আগামী ২৯ মার্চ শুরু হওয়ার কথা ভারতীয় টি-টোয়েন্টি ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগটির। কিন্তু করোনার প্রাদুর্ভাবের কারণে সংশয় তৈরি হয়েছে, আদৌ সূচি অনুযায়ী টুর্নামেন্ট চলবে কি না। নাকি পিছিয়ে দেওয়া হবে আইপিএল। তবে সংশয়টাকে আপাতত পাত্তা দিচ্ছেন না ভারতের কিংবদন্তি অধিনায়ক ও ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) বর্তমান সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী। জানিয়ে দিলেন, সূচি অনুযায়ীই চলবে আইপিএল।

ভারতের সংবাদমাধ্যম পিটিআইকে গাঙ্গুলী কাল বলেছেন, ‘আইপিএলের প্রস্তুতি পুরোদমেই চলছে। সব জায়গায় (ক্রিকেটের) সব টুর্নামেন্টই চলছে। ইংল্যান্ড এরই মধ্যে শ্রীলঙ্কায় চলে এসেছে। (১২ মার্চ থেকে ভারতের মাটিতে শুরু তিন ওয়ানডের সিরিজ খেলতে) দক্ষিণ আফ্রিকা এসেছে এখানে। কোথাও কোনো সমস্যা হচ্ছে না। জাতীয় দলগুলো বিশ্বজুড়ে একেক জায়গায় যাচ্ছে। সংযুক্ত আরব আমিরাতে গিয়ে খেলছে। তাই (আইপিএল নিয়ে) আমি কোনো সমস্যা দেখছি না।’

তবে খেলোয়াড় আর সমর্থকেরা যাতে মাঠে এসে করোনায় আক্রান্ত না হন, সেটি নিয়ে সতর্কতার প্রস্তুতিতে ঘাটতি রাখছে না ভারত। চিকিৎসক দলের পরামর্শ মেনেই সব প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন গাঙ্গুলি, ‘আমরা সব প্রস্তুতিই নিচ্ছি। বাড়তি প্রস্তুতি হিসেবে আসলে ঠিক কী কী করা হচ্ছে, তা খুঁটিনাটি বলতে পারব না। চিকিৎসক দলই আমাদের বলবেন কী করতে হবে। চিকিৎসক দল এরই মধ্যে হাসপাতালগুলোর সঙ্গে যোগাযোগ শুরু করে দিয়েছেন, যাতে সবকিছু হাতের নাগালে থাকে। ডাক্তাররা যা বলবেন আমরা তা-ই করব। তাঁরা পেশাদার। চিকিৎসা বিষয়ক ব্যাপারগুলো চিকিৎসক দলই দেখবে। প্রত্যেক টুর্নামেন্টই ঠিকঠাকভাবে চলবে।’

কোন মন্তব্য নেই