× প্রচ্ছদ পাবনা-৪ উপনির্বাচন ঈশ্বরদী পাবনা জাতীয় রাজনীতি আন্তর্জাতিক শিক্ষাজ্ঞন বিনোদন খেলাধূলা বিজ্ঞান-প্রযুক্তি নির্বাচন কলাম ছবি ভিডিও রূপপুর এনপিপি
Smiley face করোনা ঈশ্বরদী পাবনা বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক খেলা প্রযুক্তি বিনোদন শিক্ষা



মেয়ের সঙ্গে ‘প্রেম করায়’ কলেজ ছাত্রকে পিটিয়ে মারলেন বাবা ও চাচা

বৃহস্পতিবার সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার যুগিখালী ইউনিয়নের পাইকপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
প্রেমঘটিত বিষয়কে কেন্দ্র করে এক কলেজ ছাত্রকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। ওই ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগে ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ। 

বৃহস্পতিবার সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার যুগিখালী ইউনিয়নের পাইকপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত শিক্ষার্থী তুষার হোসেন জনি (২০) ঢাকা পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের ২য় বর্ষের ছাত্র ও পাইকপাড়া গ্রামের বজলুর রহমানের ছেলে।

যুগিখালী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম জানান, তুষার জনির সাথে একই গ্রামের কামরুজ্জামানের মেয়ে ও খোর্দ গার্লস স্কুলের দশম শ্রেণির ছাত্রীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। বিষয়টি জানতে পেরে বুধবার রাতে কামরুজ্জামান ও তার ভাই ওয়াহিদুজ্জামান কৌশলে জনিকে বাড়িতে ডেকে আনে। এরপর তাকে বাড়ির পাশে নিয়ে প্রচণ্ড মারধোর করে। জনির চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে আসলে তারা জনিকে ফেলে পালিয়ে যায়। জনির মাথায় আঘাত করার কারণে সে অজ্ঞান হয়ে পড়ে থাকে।

তিনি আরও বলেন, পরে অজ্ঞান অবস্থায় স্থানীয়রা রাত সাড়ে ১১ টার দিকে জনিকে উদ্ধার করে দ্রুত সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। বৃহস্পতিবার সকালে অবস্থা সংকটাপন্ন হলে সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য বলেন। খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পৌঁছানোর আগেই জনির মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে কলারোয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মুনীর উল গিয়াস বলেন, এ ঘটনায় জড়িত থাকায় কামরুজ্জামানের বাবা রিয়াজ উদ্দিন, স্ত্রী আসমা খাতুন, স্থানীয় ৩ নম্বর ওয়ার্ডের মেম্বর আব্দুল জলিলকে আটক করা হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে। ঘটনায় জড়িত বাকিদেরও আইনের আওতায় আনা হবে।

কোন মন্তব্য নেই