× প্রচ্ছদ পাবনা-৪ উপনির্বাচন ঈশ্বরদী পাবনা জাতীয় রাজনীতি আন্তর্জাতিক শিক্ষাজ্ঞন বিনোদন খেলাধূলা বিজ্ঞান-প্রযুক্তি নির্বাচন কলাম ছবি ভিডিও রূপপুর এনপিপি
Smiley face করোনা ঈশ্বরদী পাবনা বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক খেলা প্রযুক্তি বিনোদন শিক্ষা



ঈশ্বরদীতে প্রতিপক্ষের বাড়িতে অগ্নিসংযোগের অভিযোগ


ঈশ্বরদী পৌরসভার সাঁড়া গোপালপুর নতুন পাড়া এলাকায় আগুনে সাত্তার হোসেনের রান্নাঘর পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

সোমবার (৪ মে) ভোররাতে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষের লোকজন ওই বাড়িতে অগ্নিসংযোগ করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

ভুক্তভোগী সাত্তারের অভিযোগ, সেহেরী খাওয়া শেষে তারা ঘুমিয়ে পড়েন। ভোর পাঁচটার দিকে তারা হঠাৎ ঘরের বাহিরে দাউ দাউ করে আগুন জ্বলতে দেখেন।

এ সময় তারা পরিবারের ঘুমন্ত সদস্যদের জাগিয়ে তোলেন এবং তাদের নিয়ে দ্রুত বাড়ি থেকে বের হয়ে আসেন। এরই মধ্যে গ্রামবাসী বিষয়টি টের পেয়ে আগুন নেভাতে ছুটে আসেন। এক পর্যায়ে আগুন নেভানো হয়। কিন্তু তার আগেই আগুনে টিনের ছাউনির রান্নাঘর পুড়ে যায়।

সাত্তারের দাবি একই গ্রামের বাঘইল স্কুল এন্ড কলেজের প্রভাষক শামিম আহম্মেদ ওরফে রাসেলের সঙ্গে তার বিভিন্ন বিষয় নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছে। এরই জের ধরে তারা অথবা তাদের লোকজন বাড়িতে আগুন দিয়েছে।

এ ব্যাপারে উপজেলা ফায়ার সার্ভিসের ষ্টেশন অফিসার আরিফুল ইসলাম বলেন, সাঁড়া গোপালপুর এলাকায় আগুনের খবর পেয়ে দমকল বাহিনী গিয়ে আগুন নেভায়। তিনি বলেন, আগুন লাগার এ ঘটনাটি রহস্যজনক।

ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাহাউদ্দীন ফারুকী বলেন, ‘অভিযোগ দিলে তা গ্রহণ করে তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

এ ব্যাপারে অভিযুক্তদের মধ্যে শামিম আহম্মেদ বলেন, ‘তাঁর বসত বাড়ির সে সীমানা প্রাচীর ওইখানে কেউ প্রবেশ করতে পারবে না। আর আগুন দেবে কি ভাবে? আমাকে ফাঁসাতে নিজের বাড়িতে অগ্নিসংযোগ করেন সাত্তার।’

কোন মন্তব্য নেই