× প্রচ্ছদ পাবনা-৪ উপনির্বাচন ঈশ্বরদী পাবনা জাতীয় রাজনীতি আন্তর্জাতিক শিক্ষাজ্ঞন বিনোদন খেলাধূলা বিজ্ঞান-প্রযুক্তি নির্বাচন কলাম ছবি ভিডিও রূপপুর এনপিপি
Smiley face করোনা ঈশ্বরদী পাবনা বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক খেলা প্রযুক্তি বিনোদন শিক্ষা



এ যেন অন্য রকম চাঁদ রাত, ঈশ্বরদী বাজারের প্রধান ফটকে তালা

ইতিহাস টুয়েন্টিফোর প্রতিবেদকঃ
ঈশ্বরদীতে এযেন অন্য রকম এক চাঁদ রাত। প্রতি বছর চাঁদ রাতে এলেই ঈশ্বরদী বাজারের প্রধান ফটক দিয়ে মানুষকে ভীড় ঠেলে ভিতরে ঢুকতে হতো। হাজার হাজার মানুষের সমাগমে বাজার উৎসবমুখর হয়ে উঠতো। বাজারের সেই প্রধান ফটকে বিকাল ৫টার পরেই লাগানো হয়েছে তালা।  

বাজার এখন নীরব নিস্তব্ধ। মানুষের কোলাহল নেই, ক্রেতা-বিক্রেতার হাকডাক নেই। নীরব এমন চাঁদ রাত কখনও কোনদিন দেখেনি ঈশ্বরদীর মানুষ। করোনা ভাইরাস কেড়ে নিয়েছে চাঁদ রাতের সব আনন্দ। ব্যবসায়ীরা মনভরা দুঃখ নিয়ে সরকারি নির্দেশনা মেনে দোকান বন্ধ করে বাড়ি ফিরে গেছেন।করোনা  শুধু চাঁদ রাতের আনন্দই নয় ঈদের আনন্দও কেড়ে নিয়েছে করোনা।
 
ঈদ মানে আনন্দ। ঈদ মানে খুশি। ঈদ মানে স্বজন আর বন্ধুদের মিলনমেলা, হৈ-হুল্লোড়, ঘুরে বেড়ানো। ঈদ মানে কোলাকুলি, করমর্দন। ঈদ মানে প্রতিবেশীদের নিয়ে খাওয়াদাওয়া, আড্ডা দেওয়া। নাড়ির টানে গ্রামে গিয়ে মা-বাবা, ভাই-বোনদের সঙ্গে একত্র হওয়া। নতুন জামাকাপড় পরা। কিন্তু এবার সেই অনাবিল আনন্দের আবহ নেই। খুশির জোয়ারও নেই। করোনাভাইরাস মহামারির কারণে সারা বিশ্বের মতো  ঈশ্বরদীতে থমকে গেছে স্বাভাবিক জীবনযাপন। এমন অবস্থায় আগামীকাল সোমবার ঈদুল ফিতর।  

ঈদের নামাজ আমাদের দেশে একটি বড় উৎসব। ছেলে, বুড়ো, পাড়া-প্রতিবেশী সবাই দল বেঁধে ঈদের নামাজ পড়তে ঈদগাহে যায়। নামাজ শেষে একে অপরের সঙ্গে কুশল বিনিময়, করমর্দন, কোলাকুলি করে। কিন্তু করোনার স্বাস্থ্যবিধি এবার সেটা হতে দিচ্ছে না। এবার উন্মুক্ত স্থানে জনসমাগম করা যাবে না। ঈদের নামাজ পড়তে হবে মসজিদে। 

ঈশ্বরদী শিল্প ও বণিক সমিতির সভাপতি শফিকুল ইসলাম বাচ্চু বলেন, করোনা পরিস্থিতির কারণে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী বাজারের দোকানপাট বন্ধ রাখা হয়েছে। প্রধান ফটকে বিকালেই তালা লাগিয়ে দেয়া হয়েছে। চাঁদ রাত ক্রেতা ও বিক্রেতা উভয়ের জন্যই উৎসবের রাত।  প্রতিবছর সারারাতই বাজার খোলা রাখা হয়। কিন্তু এবার করোনার কারণে ব্যবসায়ীরা বাধ্য হয়েছে দোকান বন্ধ রাখতে। এতে ব্যবসায়ীরা বিশাল আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছে। কিন্তু রাষ্ট্রীয় আইনতো আমাদের মানতেই হবে। আইনের প্রতি সম্মান দেখিয়ে ব্যবসায়ীরা দোকান বন্ধ রেখেছেন।

কোন মন্তব্য নেই