× প্রচ্ছদ পাবনা-৪ উপনির্বাচন ঈশ্বরদী পাবনা জাতীয় রাজনীতি আন্তর্জাতিক শিক্ষাজ্ঞন বিনোদন খেলাধূলা বিজ্ঞান-প্রযুক্তি নির্বাচন কলাম ছবি ভিডিও রূপপুর এনপিপি
Smiley face করোনা ঈশ্বরদী পাবনা বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক খেলা প্রযুক্তি বিনোদন শিক্ষা



ঈশ্বরদীতে বিনা’র উদ্যোগে শস্য কর্তন ও মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত

ইতিহাস টুয়েন্টিফোর প্রতিবেদকঃ
বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিনা) ঈশ্বরদী উপকেন্দ্রের উদ্যোগে শস্য কর্তন ও মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত হয়। 

মঙ্গলবার (১৪ জুলাই) ঈশ্বরদী শহরের  উমিরপুর এলাকায় বিনা উদ্ভাবিত স্বল্প মেয়াদী ও খরা সহিঞ্চু আউশ ধানের উচ্চ ফলনশীল জাত বিনা-১৯ এর প্রচার ও স¤প্রসারণের লক্ষে আয়োজিত মাঠ দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন  বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিনা)’র মহাপরিচালক ড.মির্জা মোফাজ্জল ইসলাম।

 বিশেষ অতিথি ছিলেন বিনা’র পরিচালক (প্রশাসন ও সাপোর্ট সার্ভিস) ও বিনা ধান-১৯ এর উদ্ভাবক ড.  আবুল কালাম আজাদ, পাবনা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক আজহার আলী, ঈশ্বরদী উপজেলা কৃষি অফিসার আব্দুল লতিফ।

বিনা উপকেন্দ্র ঈশ্বরদী’র এসএসও এবং ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুশান চৌহানের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিনা উপকেন্দ্র ঈশ্বরদী’র বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা খানজাহান আলী, কৃষি উপ-সহকারী কর্মকর্তা সুজন কুমার রায়, কৃষক জুয়েল রানা প্রমূখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বিনা উপকেন্দ্র ঈশ্বরদী’র বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা মশিউর রহমান।

মাঠ দিবসের আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, বিনা-১৯ বৃষ্টি নির্ভর অবস্থায় সরাসরি বপন উপযোগী (ডিবলিং) আউশ ও আমন মৌসুমের একটি জাত। স্বাভাবিকভাবে কোন সেচের প্রয়োজন হয় না। এ ধানের জীবনকাল মাত্র ৯৫ থেকে ১০৫ দিন।  লবণাক্ত এলাকা ছাড়া দেশের খরা পীড়িত বরেন্দ্র ও পাহাড় অঞ্চলসহ প্রায় সকল উচুও মধ্যম উঁচু জমিতে এ জাতের ধানের ফলন হয়। কৃষকরা এই জাতের ধান লাগিয়ে বেশি ফলন পাবেন এবং উৎপাদন খরচও অন্য ধানের তুলনায় কম। তাই কম খরচে স্বল্প সময়ে বেশি ফলনের জন্য  বিনা-১৯ জাতের ধান আবাদ করার জন্য বক্তারা কৃষকদের আহবান জানান। 

কোন মন্তব্য নেই