× প্রচ্ছদ পাবনা-৪ উপনির্বাচন ঈশ্বরদী পাবনা জাতীয় রাজনীতি আন্তর্জাতিক শিক্ষাজ্ঞন বিনোদন খেলাধূলা বিজ্ঞান-প্রযুক্তি নির্বাচন কলাম ছবি ভিডিও রূপপুর এনপিপি
Smiley face করোনা ঈশ্বরদী পাবনা বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক খেলা প্রযুক্তি বিনোদন শিক্ষা



আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চায় সাবেক মন্ত্রী ডিলুর পরিবারের সদস্য ও আত্মীয়সহ ৬ জন

পাবনা-৪ আসনে (ঈশ্বরদী-আটঘরিয়া) ১৯৯৬ সাল থেকে টানা পাঁচবারের সাংসদ ছিলেন সদ্য প্রয়াত সাবেক ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ ডিলু। গত এপ্রিলে তার মৃত্যুতে শূন্য হওয়া এই আসনে উপনির্বাচনে প্রার্থী চূড়ান্ত করতে মনোনয়নপত্র বিক্রি শুরু করেছে আওয়ামী লীগ। এরই মধ্যে আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন সাবেক মন্ত্রীর স্ত্রী, পুত্র, মেয়ে, জামাই, খালাতো ভাই, ভগ্নিপতি মিলে পরিবারের সদস্য ও আত্মীয়স্বজনসহ ছয়জন। এছাড়াও মনোনয়ন পেতে মাঠে রয়েছেন একাধিক জনপ্রতিনিধিসহ কেন্দ্রীয়, জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের বেশ কয়েকজন নেতা।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গত ২ এপ্রিল সাবেক ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ ডিলুর মৃত্যুতে আসনটি শূন্য ঘোষণার পরই উপনির্বাচনে মনোনয়ন পেতে মাঠে নেমেছেন তার স্ত্রী ও ঈশ্বরদী উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কামরুন নাহার শরীফ। দুই ছেলে কনক শরীফ ও তমাল শরীফ মাকে সমর্থন দিলেও বড় ছেলে ঈশ্বরদী উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য গালিবুর রহমান শরীফ দলের কাছে মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন। মা ও ভাইয়ের পাশাপাশি মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন মাহজেবিন শিরিন। তিনি সাবেক ভূমিমন্ত্রীর বড় মেয়ে ও জেলা আওয়ামী লীগের মহিলাবিষয়ক সম্পাদক।  সাবেক ডিলু মন্ত্রীর জামাতা ঈশ্বরদী পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ঈশ্বরদী পৌরসভার মেয়র আবুল কালাম আজাদও দলের মনোনয়নপ্রত্যাশী। একই দৌড়ে অংশ নিয়েছেন শামসুর রহমান শরীফের খালাতো ভাই ও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক বশির আহম্মেদ বকুল এবং ভগ্নিপতি আওয়ামী লীগের নেতা হাবিবুর রহমান হাবিব।


এদিকে ডিলু পরিবারের বাইরেও মনোনয়নযুদ্ধে আওয়ামী লীগের অন্য সম্ভাব্য প্রার্থীদের মধ্যে প্রতিযোগিতা চলছে। পাবনা-৪ আসনের উপনির্বাচন নিয়ে এবার ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের আগ্রহ অতীতের রেকর্ড ভেঙেছে। মোট মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন ২৭ জন। জমাও দিয়েছেন সবাই।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় দপ্তর সূত্রে জানা যায়, ১৭ আগস্ট মনোনয়ন পত্র বিক্রির প্রথম দিন মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন  ৬ জন। মনোনয়ন ফরম সংগ্রহকারীরা হলেন আওয়ামী  লীগের প্রাথমিক সদস্য মেজর জেনারেল (অবঃ) এএসএম নজরুল ইসলাম রবি, পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক ব্যরিস্টার সৈয়দ আলী জিরু, সুপ্রীম কোর্টের আইনজীবী ও আ’লীগ নেতা রবিউল আলম বুদু, ঈশ্বরদী পৌর আওয়ামী লীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক মিজানুর রহমান স্বপন।

১৮ আগস্ট মনোনয়নপত্র বিতরণের দ্বিতীয় দিন মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন পাবনা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রেজাউল রহিম লাল, ঈশ্বরদী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব নুরুজ্জামান বিশ্বাস, বঙ্গবন্ধু পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির নির্বাহী সদস্য জালাল উদ্দিন তুহিন, মৎস্যজীবী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আলিম, নারী নেত্রী ড. মুসলিমা জাহান ময়না।

১৯ আগস্ট মনোনয়নপত্র সংগ্রহের তৃতীয় দিন মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ও সাবেক সংসদ সদস্য পাঞ্চাব আলী বিশ্বাস, সাবেক সংসদ সদস্য ও আ’লীগের প্রাথমিক সদস্য মঞ্জুর রহমান বিশ্বাস, ঈশ্বরদী উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আকরাম আলী খান,  তাঁতী লীগের সহ-সভাপতি এস এম গোলাম মোস্তফা, সলিমপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ৯নং ওয়ার্ড শাখার সাধারণ সম্পাদক আশরাফ আলী।

২০ আগস্ট  আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র বিক্রির চতুর্থ দিন  মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম লিটন, ঈশ্বরদী উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি  মোহাম্মদ রশিদুল্লাহ, উপজেলা আ'লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক আখতারুজ্জামান মুক্তা,  বিএমএ সদস্য ডাঃ শাহেদ রহমান।

২১ আগষ্ট আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র বিক্রির পঞ্চম দিন মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন ঈশ্বরদী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রবীণ রাজনীতিবিদ আলহাজ্ব মোঃ নায়েব আলী বিশ্বাস, আটঘরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও আটঘরিয়া পৌরসভার মেয়র শহিদুল ইসলাম রতন।

কোন মন্তব্য নেই