× প্রচ্ছদ পাবনা-৪ উপনির্বাচন ঈশ্বরদী পাবনা জাতীয় রাজনীতি আন্তর্জাতিক শিক্ষাজ্ঞন বিনোদন খেলাধূলা বিজ্ঞান-প্রযুক্তি নির্বাচন কলাম ছবি ভিডিও রূপপুর এনপিপি
Smiley face করোনা ঈশ্বরদী পাবনা বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক খেলা প্রযুক্তি বিনোদন শিক্ষা



ঈশ্বরদী শহরের কর্মকারপাড়া ও নুরমহল্লা ময়লার ভাগাড়ে পরিণত হয়েছে

ইতিহাস টুয়েন্টিফোর প্রতিবেদক-
ময়লার ভাগড়ে পরিণত হয়েছে ঈশ্বরদী শহরের কর্মকারপাড়া-নুরমহল্লা এলাকা। রাস্তা ও বাড়ির আশেপাশে পুরো এলাকা জুড়ে ময়লা-আবর্জনা ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে।

নূরমহল্লা ও কর্মকারপাড়া পুরো এলাকায় একটি মাত্র ডাস্টবিন। সেটিও ভাঙ্গাচুরা, সংস্কার হয়না  দীর্ঘদিন।  বাসাবাড়ির  ময়লা আবর্জনা  ডাস্টবিনে জায়গা সংকলান না হওয়ায়  যত্রতত্র ফেলছে এলাকাবাসী।  পৌরসভা এসব ময়লা দৈনন্দিন  অপসারণ না করায় এলাকাটি ময়লার ভাগাড়ে পরিণত হয়েছে।  চাঁদ আলী মোড় হয়ে কর্মকারপাড়ায় ঢুকলে রাস্তার পাশে শুধু চোখে পড়বে ময়লা আবর্জনা ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে।

এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা গেছে, এ এলাকায় তিনটি ডাস্টবিন প্রয়োজন কিন্তু আছে মাত্র একটি। দিন দিন এলাকার ময়লা আবর্জনার পরিমাণ বেড়ে যাচ্ছে। কিন্তু বাড়েনি ময়লা ফেলার ডাস্টবিন।
ইতিপূর্বে কর্মকারপাড়ার মাতৃ মন্দির ও নুরমহল্লার আসাদ চানাচুর ফ্যাক্টরির সামনের দুটি বৈদ্যুতিক ট্রান্সফর্মারের নিচে মানুষ ময়লা অবর্জনা ফেলতো কিন্তু সেখানে কাকের কারণে বারবার বৈদ্যুতিক ট্রান্সফর্মার দুটি বহুবার নষ্ট হয়ে গেছে। এরপর থেকে পিডিবি এবং পৌরসভা সেখানে ময়লা না ফেলার সাইনবোর্ড লাগিয়ে দিয়েছে। কিন্তু ময়লা ফেলার বিকল্প ব্যবস্থা করেনি।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, কর্মকারপাড়া-নুরমহল্লার ওহাব মল্লিকের বাসায় সামনে মহল্লার একমাত্র ডাস্টবিনের বেহাল দশা। দীর্ঘদিন সংস্কার না হওয়ায় তা ভেঙে গেছে। ফলে মানুষ সেখানে ময়লা না ফেলে রাস্তার পাশে ময়লা যত্রতত্র ফেলছে। এতে করে দূর্গন্ধে এলাকার মানুষের চলাফেরা কষ্টকর হয়ে পড়েছে। 

এছাড়াও এলাকার সড়ক ও  ড্রেনেজ ব্যবস্থারও বেহালদশা। ডাস্টবিন সংকট, রাস্তা চলাচলের অনুপযোগী ও ড্রেনেজ ব্যবস্থার দুরবস্থার কারণে এই এলাকা দিন দিন বসবাসের অনুপযোগী হয়ে যাচ্ছে।

ঈশ্বরদী পৌরসভার পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন পরিদর্শক  রুহেল আলিউজ্জমান ইতিহাস টুয়েন্টিফোরকে জানান, পৌরসভার পরিচ্ছন্ন কর্মী ও গাড়ি সংকটের কারণে প্রতিদিন নূরমহল্লা ও কর্মকারপাড়া থেকে ময়লা অপসারণ করা সম্ভব হয়না। সপ্তাহে একদিন ময়লা অপসারণ করা হয়। এখানে পর্যাপ্ত ডাস্টবিন নেই এটি সত্য। ডাস্টবিন নির্মাণ বা সংস্কারের বিষয়টি মেয়র মহোদয় ও কাউন্সিলরবৃন্দ দেখভাল করেন।

পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আমিনুর রহমানের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, নূরমহল্লা ও কর্মকারপাড়ার ডাস্টবিনসহ বিভিন্ন সমস্যার কথা পৌরসভার মিটিংয়ে অবহিত করেছি। এব্যাপারে শীঘ্রই পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলে আশা করছি।

অপুর্ব/ই২৪/এফ

কোন মন্তব্য নেই