× প্রচ্ছদ পাবনা-৪ উপনির্বাচন ঈশ্বরদী পাবনা জাতীয় রাজনীতি আন্তর্জাতিক শিক্ষাজ্ঞন বিনোদন খেলাধূলা বিজ্ঞান-প্রযুক্তি নির্বাচন কলাম ছবি ভিডিও রূপপুর এনপিপি
Smiley face করোনা ঈশ্বরদী পাবনা বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক খেলা প্রযুক্তি বিনোদন শিক্ষা



পিছিয়ে গেল আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ডের সভা

জাতীয় সংসদের পাঁচটি শূন্য আসনের উপনির্বাচনে নৌকা প্রতীকে মনোনয়নের প্রত্যাশায় ফরম সংগ্রহ করে জমা দিয়েছেন ১৪১ আওয়ামী লীগ নেতা। এর মধ্যে সর্বোচ্চ ৫৬ জন মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন ঢাকা-১৮ আসনের জন্য। অন্যদিকে সিরাজগঞ্জ-১ আসনে মাত্র তিন জন নৌকার মনোনয়ন চেয়ে ফরম সংগ্রহ করে জমা দিয়েছেন।

এদিকে, পাঁচ আসনে দলীয় মনোনয়ন চূড়ান্ত করতে মঙ্গলবার (২৫ আগস্ট) সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ডের সভা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। তবে সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় ‘অনিবার্য’ কারণবশত আপাতত পিছিয়ে গেছে। আরও দিন পাঁচেক পর এই সভা অনুষ্ঠিত হতে পারে বলে দলীয় সূত্রগুলো নিশ্চিত করেছে।

পাঁচ শূন্য সংসদীয় আসনের মধ্যে মাত্র একটির উপনির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হয়েছে, তারিখ নির্ধারিত হয়েছে আরও দু’টি আসনের উপনির্বাচনের। রোববার (২৩ আগস্ট) নির্বাচন কমিশন (ইসি) জানিয়েছে, বাকি দু’টি আসনে নির্বাচনের তারিখই নির্ধারণ করা হয়নি। তবে নির্বাচন কমিশনের তারিখ ঘোষণার সিদ্ধান্তের অনেক আগে থেকেই পাঁচ আসনের মনোনয়ন ফরম বিক্রির কার্যক্রম শুরু করে আওয়ামী লীগ। রোববার ইসি যখন নির্বাচনের তারিখ নিয়ে ঘোষণা দিচ্ছে, ততক্ষণে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম বিক্রির কার্যক্রম শেষ।

গত ১৭ আগস্ট ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে পাঁচ সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনের জন্য মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু হয়। স্বাস্থ্যবিধি মেনে আগ্রহীদের ফরম সংগ্রহ ও জমা দিতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছিল দলের পক্ষ থেকে। রোববার ছিল ফরম সংগ্রহ ও জমা দেওয়ার শেষ সময়।

আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া জানান, পাঁচটি আসনের জন্য ১৪১ জন আগ্রহী প্রার্থী মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করে জমা দিয়েছেন। এর মধ্যে ঢাকা-১৮ আসনে মনোনয়ন চাইছেন ৫৬ জন। এছাড়া নওগাঁ-৬ আসনে ৩৪ জন, পাবনা -৪ আসনে ২৭ জন ও ঢাকা-৫ আসনে মনোনয়ন পেতে ২০ জন ফরম সংগ্রহ করে জমা দিয়েছেন।

পাঁচ সংসদীয় শূন্য আসনের মনোনয়ন ফরম বিক্রি শেষ করার পর আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ডের সভার তারিখ নির্ধারিত ছিল ২৫ আগস্ট। প্রার্থী চূড়ান্ত করতে বোর্ডের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে তার সরকারি বাসভবন গণভবনে এই সভা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। ওই সভায় বোর্ড সভাপতি শেখ হাসিনার বিশেষ এখতিয়ারে বোর্ডের বাইরের একজন সদস্যেরও উপস্থিত থাকার কথা ছিল। তবে দলের একাধিক সূত্র জানিয়েছেন, সভাটি পিছিয়ে যাচ্ছে দিন পাঁচেকের জন্য। দুয়েকদিনের মধ্যে সভার তারিখ চূড়ান্ত হবে।

সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ডের সভা কবে অনুষ্ঠিত হবে— জানতে চাইলে এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি বিপ্লব বড়ুয়া। তবে দলের উপদফতর সম্পাদক সায়েম খান সভা পিছিয়ে যাওয়ার তথ্য নিশ্চিত করেন। পিছিয়ে গেলেও তারিখ চূড়ান্ত হয়নি বলেও জানান তিনি।

কোন মন্তব্য নেই