× প্রচ্ছদ পাবনা-৪ উপনির্বাচন ঈশ্বরদী পাবনা জাতীয় রাজনীতি আন্তর্জাতিক শিক্ষাজ্ঞন বিনোদন খেলাধূলা বিজ্ঞান-প্রযুক্তি নির্বাচন কলাম ছবি ভিডিও রূপপুর এনপিপি
Smiley face করোনা ঈশ্বরদী পাবনা বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক খেলা প্রযুক্তি বিনোদন শিক্ষা



পাবনা-৪ উপনির্বাচনঃ মিন্টু-ইছাহক মালিথা এক সঙ্গে নৌকার ভোট চাইলেন

ইতিহাস টুয়েন্টিফোর প্রতিবেদকঃ 
ঈশ্বরদী আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে দলের বর্ধিত সভা চলাকালে গত সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনার  দুই দিন পরেই পারম্পারিক দ্বন্দ্ব ভুলে পাবনা-৪ (ঈশ্বরদী-আটঘরিয়া) আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আলহাজ্ব নুরুজ্জামান বিশ্বাসের পক্ষে এক সঙ্গে নৌকার গণসংযোগ ও ভোট প্রার্থনায় নামেন ঈশ্বরদী পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মেয়র আবুল কালাম আজাদ মিন্টু ও পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইছাহক আলী মালিথা। 
আজ বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) সকাল ১১টায় আওয়ামী লীগ অফিস থেকে নির্বাচনের গণসংযোগ শুরু হয়ে স্টেশন রোড, কলেজ রোড, চাঁদ আলী মোড়, ও ঈশ্বরদী বাজারের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, দোকানপাটে গণসংযোগ করেন। এসময় পাবনা সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন, পাবনা পৌরসভার মেয়র কামরুল হাসান মিন্টু, ঈশ্বরদী উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম খান, ঈশ্বরদী শিল্প ও বণিক সমিতির সভাপতি শফিকুল ইসলাম বাচ্চু, নির্বাহী সদস্য কে এম আবুল বাসার, উপজেলা আ’লীগের সহভাপতি ফরিদুল আলম, উপজেলা আ’লীগ নেতা আরিফ হাসান, আব্দুল হান্নান, পৌর আ’লীগ নেতা বিডন জামান,  পাবনা জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি শরীফ উদ্দিন প্রধান, পাবনা জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক শিবলী সাদিক, ঈশ্বরদী  উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাসুদ রানা, পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মামুন সোহাগসহ দলীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। 
গণসংযোগ শেষে ঈশ্বরদী প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় আবুল কালাম আজাদ মিন্টু বলেন, ব্যক্তিগত সম্পর্কে ইছাহক আলী মালিথা আমার বড় ভাই। সেদিনের অনাকাঙ্খিত ঘটনার জন্য আমি তাঁর কাছে এবং দলীয় নেতাকর্মীদের কাছে দুঃখ প্রকাশ  করে ক্ষমা প্রার্থনা করছি। ভবিষ্যতে এধরনের অনাকাঙ্খিত ঘটনা যেন না ঘটে সেজন্য আমাদের সবাইকে সজাগ থাকতে হবে। তিনি আগামী ২৬ সেপ্টেম্বরের উপনির্বাচনে দলীয় প্রার্থীকে বিজয়ী করতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহবান জানান। 
ইছাহক আলী মালিথা তাঁর বক্তব্যের শুরুতেই সেদিনের অনাকাঙ্খিত ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, আমাদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থেকে ২৬ সেপ্টেম্বরের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী আলহাজ্ব নুরুজ্জামান বিশ্বাসকে বিজয়ী করতে হবে।নৌকা আমাদের কারো ব্যক্তিগত প্রতীক নয়, এটি জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতীক, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতীক, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রতীক।  তাই সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে নৌকাকে বিজয়ী করে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আরো শক্তিশালী করতে হবে। 

উল্লেখ্য,  গত সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) ঈশ্বরদী আওয়ামী লীগ অফিসে সামনে আবুল কালাম আজাদ মিন্টু ও ইছাহক আলী মালিথার সমর্থকদের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ১২ জন আহত হয়। আবুল কালাম আজাদ মিন্টু ও ইছাহক আলী দুইজনই লাঞ্ছিত হন। এই ঘটনার পর উপজেলা জুড়ে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। 

গতকাল মঙ্গলবার পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে আলোচনার মাধ্যমে এঘটনার মিমাংসা করা হয়।  আজ পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের নেতাদের উপস্থিতিতে এই দুই নেতা একসঙ্গে ঈশ্বরদীতে নৌকা প্রতীকের গণসংযোগে নামেন। 

কোন মন্তব্য নেই