× প্রচ্ছদ পাবনা-৪ উপনির্বাচন ঈশ্বরদী পাবনা জাতীয় রাজনীতি আন্তর্জাতিক শিক্ষাজ্ঞন বিনোদন খেলাধূলা বিজ্ঞান-প্রযুক্তি নির্বাচন কলাম ছবি ভিডিও রূপপুর এনপিপি
Smiley face করোনা ঈশ্বরদী পাবনা বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক খেলা প্রযুক্তি বিনোদন শিক্ষা



ঈশ্বরদী ইপিজেডের নাকানো কোম্পানীর এডমিন অফিসারকে মারধর ও চাঁদা দাবি, মামলা দায়ের

ঈশ্বরদী ইপিজেডে গার্মেন্টস এক্সেসরিজ শিল্পে ৬ মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ

ইতিহাস টুয়েন্টিফোর প্রতিবেদকঃ

ঈশ্বরদী ইপিজেডে 'নাকানো ইন্টারন্যাশনাল কোম্পানি লিমিটেডের" ম্যানেজার (এইচ আর এ্যান্ড এডমিন) অফিসার মমিনুল ইসলামকে মারপিট ও তাঁর নিকট ৫০ হাজার চাঁদা দাবিতে  তিনজনের মামলা হয়েছে।

মমিনুল ইসলাম বাদী হয়ে সোমবার রাতে ঈশ্বরদী থানায় মামলাটি দায়ের করেন।  তাঁর বাড়ি ঈশ্বরদী স্কুলপাড়ায়। তিনি ওই এলাকার মৃত: সাখাওয়াত মল্লিকের ছেলে। 

মামলার আসামীরা হলেন শহরের শেরশাহ রোড কাঠালতলা এলাকার আনোয়ার হোসেনের ছেলে সজিব হোসেন (২২), আলোবাগ মোড়ের মো: মিন্টুর ছেলে নাঈম হোসেন (২০) ও চরমিরকামারী  এলাকার শহিদুল ইসলাম সরদারের ছেলে সাব্বির হোসেন (২৫)।

এজাহারে উল্লেখ করা হয়, গত ৯ অক্টোবর রাত ৮টায় সজিব মুঠোফোনে নাকানো ইন্টারন্যাশনাল কোম্পানি লিমিটেডের এডমিন অফিসার মমিনুল ইসলামকেএস এম স্কুল এ্যান্ড কলেজের গেটের সামনে আসতে বলেন। মমিনুল ইসলাম সেখানে এলে নাকানো  কোম্পানিতে 'কারা ব্যবসা করেন' তাদের নাম, ঠিকানা ও তালিকা দেখতে চান  সজিব,নাঈম ও সাব্বির  ।  এসব দিতে অস্বীকৃতি জানালে কথাকাটির এক পযায়ে মমিমুলকে মারধর ও ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে আসামীরা।

ঘটনার প্রায় এক মাস পর মামলা দায়ের প্রসঙ্গে মমিনুল ইসলাম এজাহারে উল্লেখ করেছেন মারধরে কারণে সে অসুস্থ ছিল এবং নাকানো কোম্পানীর উদ্ধতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা করে মামলা দায়েরে  বিলম্ব হয়েছে।

কোন মন্তব্য নেই