× প্রচ্ছদ পাবনা-৪ উপনির্বাচন ঈশ্বরদী পাবনা জাতীয় রাজনীতি আন্তর্জাতিক শিক্ষাজ্ঞন বিনোদন খেলাধূলা বিজ্ঞান-প্রযুক্তি নির্বাচন কলাম ছবি ভিডিও রূপপুর এনপিপি
Smiley face করোনা ঈশ্বরদী পাবনা বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক খেলা প্রযুক্তি বিনোদন শিক্ষা



কেন্দ্রীয় যুবলীগের সহ-সম্পাদক হলেন ঈশ্বরদীর সন্তান মনিরুজ্জামান পিন্টু

ইতিহাস টুয়েন্টিফোর প্রতিবেদকঃ 

বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সহ-সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন ঈশ্বরদীর সন্তান সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মনিরুজ্জামান পিন্টু। 

১৪ নভেম্বর কেন্দ্রীয় যুবলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে সহ-সম্পাদক পদে সাবেক এই ছাত্রলীগ নেতার নাম ঘোষণা করা হয়।

জানা যায়,  পাবনা ঈশ্বরদী লক্ষ্মীকুন্ডা ইউনিয়নের চরকুড়ুলিয়া গ্রামের মৃত সোলায়মান হোসেন মোল্লার ছেলে  মনিরুজ্জামান পিন্টু স্কুল জীবন থেকেই ছাত্ররাজনীতিতে জড়িয়ে পরেন।  এরপর রাজশাহী নিউ গভর্নমেন্ট ডিগ্রি কলেজ ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদক ও হোস্টেল ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হয়ে সফল ভাবে দায়িত্ব পালন করেন। এরপর জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। 

 ২০০৫ ও ২০০৬ সালে বিএনপি-জোট সরকারের সময়ে আন্দোলন করতে গিয়ে দুই বার গ্রেফতার ও নির্যাতনের শিকার হন। তার পরবর্তীতে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সহ-সম্পাদক নির্বাচিত হয়ে ২০০৬ থেকে ২০১০ পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেন এই আওয়ামী যুবনেতা। ২০০৭-২০০৮ সালে ১/১১  সরকারের সময় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে দায়িত্বপ্রাপ্ত হয়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়সহ রাজশাহী অঞ্চলে জননেত্রী শেখ হাসিনার মুক্তির আন্দোলনে সক্রিয় ভূমিকা পালন করেন। 

ঈশ্বরদীর লক্ষ্মীকুন্ডা ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আলফাজ উদ্দিন বলেন, ঈশ্বরদীর কৃতি সন্তান ও প্রতিভাবান যুবলীগ নেতা মনিরুজ্জামান পিন্টু কেন্দ্রীয় যুবলীগের সহ-সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ায় আমরা  ঈশ্বরদী ও পাবনা জেলাবাসী গর্বিত ও আনন্দিত। আমরা আশাকরি এক সময়ের তুখোড় ছাত্রলীগ নেতা  পিন্টু যুবলীগের নেতৃত্বেও তাঁর প্রতিভা ও কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখবেন এবং ঈশ্বরদী ও পাবনাবাসীর মুখ উজ্জ্বল করবেন।  

প্রসঙ্গত, গতবছর কেন্দ্রীয় যুবলীগের সপ্তম সম্মেলনে জাতীয় শেখ ফজলে শামস পরশকে চেয়ারম্যান ও মাইনুল হোসেন খান নিখিলকে সাধারণ সম্পাদকের পদ দিয়ে কমিটি ঘোষণা করা হয়। এর প্রায় এক বছর পর গত ১৪ নভেম্বর সন্ধ্যায় সংগঠনের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ ও সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল ২০১ সদস্য বিশিষ্ট এই পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করেন।

কোন মন্তব্য নেই