× প্রচ্ছদ পাবনা-৪ উপনির্বাচন ঈশ্বরদী পাবনা জাতীয় রাজনীতি আন্তর্জাতিক শিক্ষাজ্ঞন বিনোদন খেলাধূলা বিজ্ঞান-প্রযুক্তি নির্বাচন কলাম ছবি ভিডিও রূপপুর এনপিপি
Smiley face করোনা ঈশ্বরদী পাবনা বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক খেলা প্রযুক্তি বিনোদন শিক্ষা



পাল্টে গেল আ.লীগ প্রার্থী

ইতিহাস টুয়েন্টিফোর ডেস্কঃ 

সমস্ত আলোচনার অবসান ঘটিয়ে চুয়াডাঙ্গা পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেলেন জাহাঙ্গীর আলম মালিক ওরফে খোকন। তিনি বর্তমানে চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর।

এর আগে শনিবার বিকেলে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সভা শেষে চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার সাবেক মেয়র ও চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটনকে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন দেয়া হয়।

কিন্তু সোমবার (৩০ নভেম্বর) দুপুর থেকে চুয়াডাঙ্গা পৌরশহরসহ জেলাজুড়ে চুয়াডাঙ্গা পৌর মেয়র পদে দলীয় মনোনয়ন পরিবর্তনের বিষয়টির ব্যাপারে ব্যাপক আলোচনা শুরু হয়। তবে ওই সময় দায়িত্বশীল কোনো সূত্র থেকে বিষয়টির ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

অবশেষে রাত পৌনে ১১টার সময় মনোনয়ন পরিবর্তনের চিঠি ও দলীয় মনোনয়ন ফর্ম সাংবাদিকদের হাতে এসে পৌঁছায়।

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও স্থানীয় সরকার নির্বাচন মনোনয়ন বোর্ডের সভাপতি শেখ হাসিনা স্বাক্ষরিত দলীয় প্যাডের চিঠিতে লেখা আছে, ‘স্থানীয় সরকার/পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দারকে দলের মনোনয়ন প্রদান করা হয়েছিল। পরবর্তীতে তার মনোনয়ন বাতিল করে ৩০ নভেম্বর ২০২০ তারিখে জাহাঙ্গীর আলম মালিককে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের চূড়ান্ত মনোনয়ন প্রদান করা হলো।’

রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন তবে কী কারণে দলীয় মনোনয়ন পরিবর্তন করা হলো এ ব্যাপারে ওই চিঠিতে কিছু উল্লেখ করা হয়নি।

এদিকে চুয়াডাঙ্গা পৌর নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার ও জেলা নির্বাচন অফিসার তারেক আহম্মেদ জানান, চুয়াডাঙ্গা পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের চূড়ান্ত মনোনয়ন কাকে দেয়া হয়েছে এ সংক্রান্ত কোনো চিঠি সোমবার সন্ধ্যা পর্যন্ত তিনি হাতে পাননি।

মঙ্গলবার (১ ডিসেম্বর) বিকেল ৫টা পর্যন্ত মনোনয়ন দাখিলের দিন ধার্য রয়েছে। ওই দিনই এ ব্যাপারে নিশ্চিত হতে পারবেন বলে জানান তিনি।

সূত্র জানায়, এর আগে গত বুধবার জেলা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে চুয়াডাঙ্গার-১ আসনের সংসদ সদস্য সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুনের ছোট ভাই সাবেক মেয়র ও চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন এক নম্বর ক্রমিকে, দুই নম্বর ক্রমিকে চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর আলম মালিক ওরফে খোকন এবং তিন নম্বর ক্রমিকে চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবলীগের সদস্য শরিফ হোসেন দুদুর নাম প্রস্তাব করে কেন্দ্রে পাঠানো হয়।

শনিবার বিকেলে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সভা শেষে রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটনের নাম ঘোষণা করা হয়। দলীয় মনোনয়ন পাওয়ায় ওইদিন সন্ধ্যায় টোটনের অনুসারী নেতা-কর্মীরা খণ্ড খণ্ড মিছিল করেন এবং মিষ্টি বিতরণ করেন।

উল্লেখ্য, প্রথম ধাপের পৌর নির্বাচনে ২৮ ডিসেম্বর চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার ভোট গ্রহণের দিন নির্ধারণ করেছে নির্বাচন কমিশন। তফসিল অনুযায়ী ১ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন।

কোন মন্তব্য নেই