× প্রচ্ছদ পাবনা-৪ উপনির্বাচন ঈশ্বরদী পাবনা জাতীয় রাজনীতি আন্তর্জাতিক শিক্ষাজ্ঞন বিনোদন খেলাধূলা বিজ্ঞান-প্রযুক্তি নির্বাচন কলাম ছবি ভিডিও রূপপুর এনপিপি
Smiley face করোনা ঈশ্বরদী পাবনা বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক খেলা প্রযুক্তি বিনোদন শিক্ষা



ভোট বর্জনের পরই বিএনপি প্রার্থীর মৃত্যু

অনিয়মের অভিযোগে ভোট বর্জন করার ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই মারা গেলেন বিএনপি প্রার্থী আবুল খায়ের খান।

সোমবার বিকাল সোয়া ৩টার দিকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ‌চি‌কিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। তিনি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন।

খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের করোনা ডেডিকেটেড ইউনিটের প্রধান ডা. ফরিদ উদ্দিন তার মৃত্যু নিশ্চিত করেন।

করোনায় আক্রান্ত হয়ে ২২ ডিসেম্বর রাতে আবুল খয়ের খান করোনা ডেডিকেটেড ইউনিটের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) ভর্তি ছিলেন।

এদিকে সোমবার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত চালনা পৌরসভায় ভোটগ্রহণ হয়। এখানে বিএনপির মেয়র প্রার্থী ছিলেন দাকোপ উপজেলা বিএনপির আহবায়ক আবুল খয়ের খান (৬০)।

দুপুর পৌঁনে ২টায় আবুল খয়ের খানের নির্বাচনের প্রধান এজেন্ট আব্দুল মান্নান খান ও স্বতন্ত্র প্রার্থী ড. অচিন্ত্য কুমার বিশ্বাস পৃথকভাবে ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন।

বিএনপি প্রার্থীর নির্বাচনের প্রধান এজেন্ট আব্দুল মান্নান খান অভিযোগ করে বলেন, ভোটের নামে চালনা পৌরসভায় তামাশা হয়েছে। আওয়ামী লীগের কর্মীরা বুথে ঢুকে তাদের দলীয় প্রার্থী ও বর্তমান মেয়র সনত কুমার বিশ্বাসকে ভোট দিয়েছে।প্রিজাইডং অফিসারের নিকট অভিযোগ করেও কোনো কাজ হয়নি। ফলে আমরা ভোট বর্জন করতে বাধ্য হয়েছি।

জেলা বিএনপির সভাপতি অ্যাডভোকেট শফিকুল আলম মনা অভিযোগ করে বলেন, আওয়ামী লীগের প্রার্থীর পক্ষে জোর করে ভোট নেওয়া হচ্ছে-এমন সংবাদ পেয়েই মারা গেছেন আবুল খায়ের।

কোন মন্তব্য নেই