× প্রচ্ছদ পাবনা-৪ উপনির্বাচন ঈশ্বরদী পাবনা জাতীয় রাজনীতি আন্তর্জাতিক শিক্ষাজ্ঞন বিনোদন খেলাধূলা বিজ্ঞান-প্রযুক্তি নির্বাচন কলাম ছবি ভিডিও রূপপুর এনপিপি
Smiley face করোনা ঈশ্বরদী পাবনা বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক খেলা প্রযুক্তি বিনোদন শিক্ষা



ঈশ্বরদীতে সূর্যের দেখা মিললেও রয়েছে কনকনে ঠান্ডা

কুড়িগ্রামে বইছে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ                                                                                                                                                 ফাইল ফটো। 

ইতিহাস টুয়েন্টিফোর প্রতিবেদকঃ 

মাঘ মানেই হাড় কাঁপানো শীতের সময়কাল। দিনে সূর্যের দেখা মিললেও বাতাসে রয়েছে তীব্র শীত। এই শীতে যত বড়ই জোয়ান-পালোয়ান হোক না কেনো, সবাই কাতর। তাই হাড় কাঁপানো শীতে জনজীবনেও দেখা দিয়েছে স্থবিরতা।

সোমবার (০১ ফেব্রুয়ারি) ঈশ্বরদী আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, সকাল ৯টায় রেকর্ডকৃত তাপমাত্রা ছিল ৬.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বাতাসে আদ্রতার পরিমাণ শতভাগ রয়েছে। দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা আজ রেকর্ড হয়েছে শ্রীমঙ্গলে। সেখানে পারদ নেমেছে ৫.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসে।

ঈশ্বরদী আবহাওয়া অফিসের পর্যবেক্ষক নাজমুল হক রঞ্জন বলেন, গতকাল রোববার রাত ৯ থেকে ১০টা পর্যন্ত তাপমাত্রা একই রকম থাকলেও রাত ১২টার পর বাতাসে শৈত্যপ্রবাহের কারণে তাপমাত্রা কমতে থাকে। শৈত্যপ্রবাহের কারণে সূর্যের আলো থাকলেও তীব্র শীত অনুভূত হচ্ছে।

তিনি আরও জানান, হঠাৎ করে তাপমাত্রা কমে আসার কারণে সকালে ঘন কুয়াশার দেখা মিলছে। এছাড়াও সন্ধ্যা নামার আগেই শহর ও গ্রামাঞ্চলে ধোঁয়ার মতো ঘন কুয়াশা দেখা যাচ্ছে। ঈশ্বরদীসহ  উত্তরাঞ্চলে আরও ২ থেকে ৩ দিন এ শৈত্যপ্রবাহ বিরাজ করবে। তারপর ধীরে ধীরে শীত কমে আবহাওয়া স্বাভাবিক পর্যায়ে আসবে।

উল্লেখ্য, গতকাল রবিবার (৩১ ‍জানুয়ারি) ঈশ্বরদীতে থার্মোমিটারের পারদ নেমেছিল ৬ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। যা  চলতি শীত মৌসুমে ঈশ্বরদীর  সর্বনিম্ন তাপমাত্রা  ছিল।

কোন মন্তব্য নেই