× প্রচ্ছদ পাবনা-৪ উপনির্বাচন ঈশ্বরদী পাবনা জাতীয় রাজনীতি আন্তর্জাতিক শিক্ষাজ্ঞন বিনোদন খেলাধূলা বিজ্ঞান-প্রযুক্তি নির্বাচন কলাম ছবি ভিডিও রূপপুর এনপিপি
Smiley face করোনা ঈশ্বরদী পাবনা বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক খেলা প্রযুক্তি বিনোদন শিক্ষা



ঈশ্বরদীতে পুলিশ পরিচয়ে প্রতারণায় আটক ৪


ইতিহাস টুয়েন্টিফোর প্রতিবেদকঃ 

 ঈশ্বরদীতে ফাঁদে ফেলে পুলিশ পরিচয়ে মিশন আলী নামে এক ব্যক্তি থেকে অর্থ ও মুঠোফোন হাতিয়ে নেওয়া চক্রের চার সদস্যকে আটক করা হয়েছে।

রবিবার দুপুরে ঈশ্বরদী শহরের পিয়ারাখালীর একটি ভাড়া বাসা থেকে তাদের আটক করে পুলিশ।

আটকরা হলেন– ঈশ্বরদীর সীমা খাতুন, তার মেয়ে লিমা খাতুন, বরিশালের গৌরনদী থানার মো. রিয়াজ ও কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার তুষার আহমেদ।

পুলিশ জানান, গত শনিবার সন্ধ্যায় এক বন্ধুর প্রলোভনে পড়ে নারীসঙ্গের জন্য মিশন আলী পিয়ারাখালীর ওই বাড়িতে আসেন। সেখানে কক্ষে এক তরুণীর সঙ্গে তাকে রেখে আপত্তিকর ছবি ও ভিডিও ধারণ করা হয়। এরই একপর্যায়ে হ্যান্ডকাফ এনে একজন নিজেকে পুলিশ পরিচয় দিয়ে মিশনকে আটক করেন। মারধরের পর ৫০ হাজার টাকা দিলে তাকে ছেড়ে দেওয়ার কথা জানান তিনি। অপারগতা জানালে মিশনের কাছে থাকা নগদ ১৭০০ টাকা ও স্মার্টফোনটি কেড়ে নেয় প্রতারকরা। পরে ছবি ও ভিডিও মুছে ফেলার শর্তে মিশন আরও ১০ হাজার টাকা দিলে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

তবে মিশন আলী সকালে বিষয়টি ঈশ্বরদী থানায় জানান। দুপুরে ওই বাড়িতে অভিযান চালিয়ে চারজনকে আটক করা হয় বলে জানান থানার ওসি আসাদুজ্জামান।

তিনি বলেন, আটকদের বিরুদ্ধে আগেও নানা অভিযোগ রয়েছে। মিশনের সঙ্গে প্রতারণার ঘটনার মামলার প্রস্তুতি চলছে। চক্রের অন্যদেরও ধরা হবে।

কোন মন্তব্য নেই