× প্রচ্ছদ পাবনা-৪ উপনির্বাচন ঈশ্বরদী পাবনা জাতীয় রাজনীতি আন্তর্জাতিক শিক্ষাজ্ঞন বিনোদন খেলাধূলা বিজ্ঞান-প্রযুক্তি নির্বাচন কলাম ছবি ভিডিও রূপপুর এনপিপি
Smiley face করোনা ঈশ্বরদী পাবনা বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক খেলা প্রযুক্তি বিনোদন শিক্ষা



ঘরে লাশ রেখে পালালেন স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন

ঘরে লাশ রেখে পালালেন স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন

বগুড়ার শেরপুরে সাবিনা বেগম (৩০) নামের এক গৃহবধূর লাশ ঘরে রেখে তার স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজন পালিয়ে গেছেন। শনিবার (২০ মার্চ) সকাল ১০টায় তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

পরবর্তীতে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।

পুলিশ জানায়, ৯ মাস আগে উপজেলার সুঘাট ইউনিয়নের জয়নগর গ্রামের ইব্রাহীম হোসেনের ছেলে শফিকুল ইসলাম শফির সঙ্গে সাবিনার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই তাদের মধ্যে বনিবনা হচ্ছিল না। এমনকি স্ত্রীর পরকীয়া রয়েছে বলেও সন্দেহ করতেন স্বামী শফিকুল ইসলাম।

শুক্রবার (১৯মার্চ) বিকেলে তাদের মধ্যে এ বিষয়ে বাগ-বিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে সাবিনাকে তার স্বামী মারধরও করেন। পরবর্তীতে ওইদিন রাত ৮টায় দেবর রেজাউলের ঘরের তারের সঙ্গে গলায় রশি লাগানো সাবিনাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায়।

এরপর রশি কেটে গৃহবধূকে মাটিতে নামিয়ে ঘরের মধ্যে লাশ ফেলে রেখে তার স্বামী শফিকুল ইসলাম ও স্বজনরা পালিয়ে যায়।

শেরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহিদুল ইসলাম শহিদ বলেন, ঘটনার দিন বিকেলে ওই গৃহবধূকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করা হয়। এছাড়া গলায় ফাঁস দেয়ার চিহ্ন রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার পর থেকেই স্বামী ও তার পরিবারের লোকজন পলাতক রয়েছে।

এই ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। পরবর্তীতে নিহতের পরিবারের অভিযোগ ও ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনের প্রেক্ষিতে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা। 

কোন মন্তব্য নেই