ঢাকাসোমবার , ৬ সেপ্টেম্বর ২০২১

প্রেমিকার চরম হুমকির পরও অনড় প্রেমিক, কিছুতেই বিয়ে নয়!

জেলা প্রতিনিধি
সেপ্টেম্বর ৬, ২০২১ ৪:৫২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার জগতবেড় ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ড বাংলাবাড়ি এলাকার প্রেমিক আনিছুর রহমান লেলিনের (২৩) বাড়িতে অবস্থান করছেন প্রেমিকা (২০)। এ ঘটনায় প্রেমিক ও প্রেমিকার পরিবার থানা পুলিশের স্মরণাপন্ন হয়েছে।
অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, জগতবেড় ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ড বাংলাবাড়ি এলাকার বাসিন্দা নুর ইসলামের ছেলে আনিছুর রহমান লেলিন পাটগ্রাম পৌরসভার এক তরুণীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলেন। বিয়ে করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে উপজেলা ও জেলার বিভিন্ন স্থানে নিয়ে গিয়ে একাধিকবার শারীরিক সম্পর্ক তৈরি করেন। একপর্যায়ে প্রেমিকার সঙ্গে কথা বলা বন্ধ করে দেন লেলিন। পরে বিয়ের জন্য চাপ দিলে সম্পর্ক অস্বীকার করেন লেলিন। এ ঘটনার পর গত ২৭ আগস্ট প্রেমিকের বাড়িতে গিয়ে ওঠেন প্রেমিকা।
ওই তরুণীর দাবি বাড়িতে যাওয়ার পর বাড়ির পেছন দিয়ে পালিয়ে যান প্রেমিক। সে থেকে প্রেমিকের ফিরে আসার অপেক্ষায় তার (প্রেমিকের) বাড়িতে রয়েছেন প্রেমিকা। এ ঘটনায় প্রেমিকার বাবা বাদী হয়ে পাটগ্রাম থানায় একটি অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগে তিনি দাবি করেছেন, আনিছুর রহমান লেলিন বিয়ে রেজিস্ট্রি করার কথা বলে মেয়েকে ডেকে নিয়ে বাবা-মা, ভাইয়ের পরামর্শে পালিয়ে যান।
প্রেমিকের বাবা নুর ইসলাম ও মা রুবিনা বেগম বলেন, ‘ছেলে যেহেতু ভুল করেছে। আমরা মেনে নিয়েছি। ছেলে যদি বিয়ে করে আমাদের কোনো আপত্তি নাই। মেয়ের পরিবারের লোকজন আমাদেরকে ভয় দেখায়। আমরা থানায় একটি অভিযোগ করেছি।’
তরুণী বলেন, ‘আমার জীবন শেষ করে দিয়েছে লেলিন। তাকে তার পরিবারের লোকজন ভাগিয়ে দিয়েছে। আমি তো মেয়ে, আমার কী হবে। আমি খুব স্বাভাবিকভাবে বলছি, আমার বিয়ে না হলে আমি আত্মহত্যা করব।’
প্রেমিক আনিছুর রহমান লেলিন বলেন, ‘আমি চট্টগ্রামে আছি। আমার সঙ্গে ওই মেয়ের কয়েকদিন আগে পরিচয়। বন্ধুর বোন হিসেবে কথা বলেছি। ওই মেয়ে যা বলেছে সব মিথ্যা। আমার ভবিষ্যৎ নিয়ে ভাবতেছি। ওই মেয়ের সঙ্গে আমার মিলেই হবে না। কখনোই বিয়ে করব না। জীবন শেষ হবে তবু বিয়ে করব না। ষড়যন্ত্র করে মেয়েটিকে আমাদের বাড়িতে ঢুকিয়ে দেওয়া হয়েছে। মামলা করে করুক, মামলা চালাব।’
পাটগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওমর ফারুক বলেন, ‘উভয়ে থানায় অভিযোগ দিয়েছে। বিষয়টি তদন্তাধীন রয়েছে।’

error: Please Stop!!You can not copy this content becuase this site content is under protection. Thank You Itihas24 Developer Team