ঢাকাশনিবার , ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

স্ত্রীর মরদেহ হাসপাতালে রেখে পালালেন স্বামী

বিশেষ প্রতিবেদক
সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২১ ৭:০৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুরে জুয়া খেলার টাকা না পেয়ে রাতভর নির্যাতনে নিহত কাকুলি রানী মহন্ত (৩০) নামের এক গৃহবধূর মরদেহ হাসপাতালে রেখে পালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে স্বামীসহ তার পরিবারের বিরুদ্ধে।

শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সকালে গাইবান্ধা জেনারেল হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত কাকুলি রানী উপজেলার রসূলপুর ইউনিয়নের রসূলপুর গ্রামের চিত্তরঞ্জন মহন্তের মেয়ে। আড়াই বছর আগে কল্লল চন্দ্রের সঙ্গে পারিবারিক ভাবে তার বিয়ে হয়।

নিহতের পরিবারের অভিযোগ, আড়াই বছর আগে পারিবারিক ভাবে একই উপজেলার কামারপাড়া ইউনিয়নের কেশালীডাঙ্গা গ্রামের শুকলু চন্দ্র মহন্তের ছেলে কল্ললের সঙ্গে কাকুলির বিয়ে হয়। এরপর থেকে বিভিন্ন সময় যৌতুক চেয়ে কাকুলিকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করে আসছিলেন কল্ললসহ তার পরিবার।

শুক্রবার রাতে কল্লল স্ত্রী কাকুলির কাছে জুয়া খেলার টাকা চায়। টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে রাতভর তাকে মারধর করে গলাটিপে হত্যা করে। পরে সকালে মরদেহ হাসপাতালে রেখে পালিয়ে যায় কল্ললসহ তার পরিবারের লোকজন।

গাইবান্ধা জেনারেল হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারের (ওসিসি) কর্মকর্তা মো. ওবায়দুল্লা জানান, গৃহবধূকে সকাল সাড়ে নয়টার দিকে হাসপাতালে আনা হয়। পরে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এরপরই মরদেহ জরুরি বিভাগে রেখে স্বামীসহ সবাই পালিয়ে যান।

সাদুল্লাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার রায় বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

error: Please Stop!!You can not copy this content becuase this site content is under protection. Thank You Itihas24 Developer Team