ঢাকারবিবার , ২৪ অক্টোবর ২০২১

রাজাকার সন্তান আ.লীগ প্রার্থী, শান্তি কমিটির সভাপতির ছেলেও পেলেন নৌকা!

জেলা প্রতিনিধি
অক্টোবর ২৪, ২০২১ ১২:১৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

কুষ্টিয়ার মিরপুরের পোড়াদহ ইউনিয়ন এবং মাগুরার মহম্মদপুরের বিনোদপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে রাজাকারের সন্তানদের আওয়ামী লীগের প্রার্থী করায় মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে স্থানীয়রা। অন্যদিকে যশোরের বাঘারপাড়ার রায়পুর ইউনিয়নে শান্তি কমিটির সভাপতির ছেলে নৌকা প্রতীক পাওয়ায় বিক্ষোভ ও মানববন্ধন হয়েছে।

কুষ্টিয়া জানান, পোড়াদহ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে রাজাকারের মেয়েকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী করায় তা পরিবর্তন করতে দলের সভাপতি শেখ হাসিনা বরাবর চিঠি পাঠানো হয়েছে। গতকাল শনিবার পোড়াদহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সহিদুল ইসলাম সবেদ চিঠিটি পাঠান। আগামী ১১ নভেম্বর এই ইউপিতে ভোটগ্রহণের কথা রয়েছে।

চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, মিরপুর উপজেলার তালিকাভুক্ত রাজাকার আব্দুল গফুর মণ্ডলের মেয়ে শারমিন আক্তার নাসরিন পোড়াদহ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় প্রতীক নৌকার মনোনয়ন পাওয়ায় স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা ক্ষুব্ধ। ২০১৬ সালে মিরপুর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিল প্রকাশিত ৬ নম্বর তালিকাভুক্ত রাজাকার ও শান্তি কমিটির সদস্য আব্দুল গফুর মণ্ডল শারমিনের বাবা। আব্দুল গফুর মণ্ডল যুদ্ধাপরাধী হিসেবে দালাল আইনে জেল খেটেছেন বলেও জানান মুক্তিযোদ্ধারা।

এদিকে শারমিন আক্তার নাসরিন জানান, তিনি ৩০ বছর ধরে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর তাঁর জন্ম। তাঁর বাবা রাজাকার ছিলেন, এ তথ্য তাঁর জানা নেই। সেই দায়ভার তিনি নিতেও রাজি নন।

মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলার বিনোদপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে রাজাকারপুত্র শিকদার মিজানুর রহমানকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ নিয়ে গতকাল শহরের চৌরঙ্গী এলাকায় মানববন্ধন করেছে স্থানীয়রা। বিনোদপুরের মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তান কমান্ডের ব্যানারে গতকাল দুপুর ১২টায় মহম্মদপুর সদর ও বিনোদপুর ইউনিয়নের দুই শতাধিক মানুষ শিকদার মিজানুর রহমানকে চেয়ারম্যান প্রার্থী করার প্রতিবাদে এই মানববন্ধন করে।

মানববন্ধনে বিনোদপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাজেদুর রহমান সংগ্রাম বলেন, ‘রাজাকার কিংবা রাজাকারের সন্তানকে মনোনয়ন না দেওয়ার বিষয়ে দলের মনোনয়ন বোর্ড বারবার ঘোষণা দিয়ে আসছে। এর পরও বিনোদপুর ইউনিয়নে কিভাবে রাজাকার চাঁদ আলী শিকদারের ছেলে শিকদার মিজানুর রহমান বারবার মনোনয়ন পাচ্ছেন তা আমরা বুঝতে পারছি না। তাঁর বাবা একজন তালিকাভুক্ত রাজাকার; মাগুরার রাজাকারদের সরকারি তালিকায় যাঁর ক্রমিক নম্বর ৯৩। আমরা এ মনোনয়নের তীব্র বিরোধিতা করছি।’

এ বিষয়ে চেয়ারম্যান প্রার্থী শিকদার মিজানুর রহমান বলেন, ‘আমার বাবা চাঁদ আলী শিকদার আজীবন আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। আমৃত্যু তিনি জেলা কৃষক লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করে গেছেন। বর্তমানে আমি বিনোদপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি। আমার বাবা রাজাকার ছিলেন—এ ধরনের কোনো তথ্য আমার জানা নেই। মনোনয়নবঞ্চিত সিরাজুল ইসলামসহ অন্যরা প্রতিহিংসাপরায়ণ হয়ে ষড়যন্ত্র করে বেড়াচ্ছে।’

যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে বিল্লাল হোসেনকে। অভিযোগ উঠেছে, তিনি স্বাধীনতাযুদ্ধের বিরোধিতাকারী শান্তি কমিটির স্থানীয় সভাপতি মোহাম্মদ আলীর ছেলে। স্বাধীনতাযুদ্ধের বিরোধিতাকারীর ছেলে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী হওয়ায় মুক্তিযোদ্ধা ও আওয়ামী লীগের তৃণমূলের নেতাকর্মীরা হতবাক। এর প্রতিবাদে স্থানীয়রা মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে। গতকাল বিকেলে রায়পুর ইউনিয়ন পরিষদের সামনে এই মানববন্ধন করা হয়

error: Please Stop!!You can not copy this content becuase this site content is under protection. Thank You Itihas24 Developer Team