ঢাকাবৃহস্পতিবার , ১১ নভেম্বর ২০২১

সংঘর্ষ-সহিংসতায় শেষ হলো ভোট, প্রাণ গেল ৬ জনের

বিশেষ প্রতিবেদক
নভেম্বর ১১, ২০২১ ৮:২১ অপরাহ্ণ
Link Copied!

দেশের বিভিন্ন জায়গায় হানাহানি, সংঘাত ও সংঘর্ষের মধ্যদিয়ে শেষ হলো ইউপি নিার্বচনের দ্বিতীয় ধাপের ভোটগ্রহণ। এরই মধ্যে কেন্দ্র দখল ও আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে রায়পুরা উপজেলার দুর্গম চরাঞ্চল বাঁশগাড়ী ইউনিয়নে প্রতিপক্ষের হামলায় ৩ জন, কক্সবাজারে একজন, চট্টগ্রামে একজন ও কুমিল্লায় একজন নিহত হয়েছেন।

আজ বৃহস্পতিবার (১১ নভেম্বর) সকাল ৮টা থেকে দেশের ৮৩৫টি ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। ভোট চলাকালীন ভোটকেন্দ্রে ঢুকে জোর করে ব্যালট পেপারে সিল মারা, প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর এজেন্টদের বের করে দেওয়াসহ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে দুর্গম রায়পুরার চরাঞ্চল বাঁশগাড়ীতে নির্বাচনী সহিংসতায় তিনজন নিহত হন। এ ছাড়া বেলা সাড়ে ১১টার দিকে জাল ভোট দেওয়াকে কেন্দ্র করে রায়পুরার আমিরগঞ্জ ইউনিয়নের করিমগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ব্যাপক সংঘর্ষ-মারামারির ঘটনা ঘটেছে। এতে সাইফুল নামে একজনের মাথা ফেটে যায় এবং বেশ কয়েকজন আহত হয়। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

চসুবুদ্ধি ইউনিয়নের মহিষবের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, অবস্থা খুবই খারাপ। শত শত লোক টেঁটা নিয়ে কেন্দ্রে হামলা করে ব্যালট বাক্স ও ব্যালট পেপার ছিনিয়ে নেয়।

এদিকে কক্সবাজার সদর উপজেলার খুরুশকুল ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের তেতৈয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে দুই মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে একজন নিহত হয়েছেন।

মেহেরপুরের মুজিবনগরের মহাজনপুর ইউনিয়নে নৌকা ও আনারস প্রার্থীর মধ‍্যে বাগবিতণ্ডার ঘটনায় পুলিশ ফাঁকা গুলি ছোড়ে। কোমরপুর ভোটকেন্দ্রে বেলা ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেন মুজিবনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাশেম।

চট্টগ্রামের ফটিকছড়ির লেলাং ইউনিয়নে দুই মেম্বার পদপ্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে শফি উদ্দিন নামে এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়। এ সময় দুই পক্ষের সংঘর্ষে কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। তাদেরকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের গোপালঘাটা আনন্দবাজার এলাকায় বৃহস্পতিবার দুপুরে এই ঘটনা ঘটে।
কুমিল্লার মেঘনা উপজেলার মানিকারচর ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে আমিরাবাদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে তিনজন গুলিবিদ্ধ হন। এ সময় স্থানীয়রা গুলিবিদ্ধদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে একজনের মৃত্যু হয়। নিহতের নাম শাওন আহমেদ (২৫)। তিনি উপজেলার ভল্লবেরকান্দি গ্রামের মোবারক হোসেনের ছেলে।
দুপুর আড়াইটার দিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মেঘনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক সালাউদ্দিন মোল্লা। তিনি জানান, এ ঘটনায গুলিবিদ্ধ অন্যদের অবস্থাও আশঙ্কাজনক।
চট্টগ্রামের কক্সবাজার সদর উপজেলার খুরুশকুল ইউপি নির্বাচনেও সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে আকতারুজ্জামান পুতু নামের একজন প্রাণ হারিয়েছেন।
খুরুশকুল ইউনিয়নের তেতৈয়ায় বৃহস্পতিবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো ৬ জন। খুরুশকুল ইউপি চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

error: Please Stop!!You can not copy this content becuase this site content is under protection. Thank You Itihas24 Developer Team