ঢাকাশুক্রবার , ৭ জানুয়ারি ২০২২

ইউপি সদস্য নির্বাচিত হলেন তিন বোন

বিশেষ প্রতিবেদক
জানুয়ারি ৭, ২০২২ ৬:৫৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

পঞ্চম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলায় একসঙ্গে তিন বোন সংরক্ষিত ওয়ার্ডের মহিলা সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন।
জানা যায়, সাবেক মহিলা সদস্য আলেয়া বেগমের পথ অনুসরণ করে এবার পঞ্চম ধাপের নির্বাচনে একসঙ্গে তার তিন মেয়ে সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডের মহিলা মেম্বার নির্বাচিত হয়েছেন।
নবনির্বাচিত তিন বোনের মধ্যে হালিমা বেগম (৪৩) নির্বাচিত হয়েছেন উপজেলার বিপ্র বেলঘড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের ১, ২ ও ৩ নম্বর ওয়ার্ড থেকে। মেজ বোন নাসিমা বেগম (৪১) একই ইউনিয়ন পরিষদের ৪, ৫ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডে। আর ছোট বোন শাহনাজ পারভীন (৩৯) নির্বাচিত হয়েছেন একই উপজেলার ছাতনী ইউনিয়ন পরিষদের ৪, ৫ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডে।
নির্বাচিত তিন বোন জানান, কিছু নেওয়ার জন্য কোনো ভোটারকে বা নাগরিককে তাদের দ্বারে দ্বারে ঘুরতে হবে না। তারাই যাবেন নাগরিকের ঘরে ঘরে। পৌঁছে দেবেন সব সরকারি সুযোগ-সুবিধা।
বড় বোন হালিমা বেগম বলেন, আমার বাবা মৃত আব্দুস সাত্তার একবার ইউপি সদস্য নির্বাচনে দাঁড়িয়ে মাত্র দুই ভোটে পরাজিত হয়েছিলেন। এখনো সেই কষ্ট ভুলিনি। আমার মা আলেয়া বেগম বারবার সংরক্ষিত নারী ওয়ার্ডে মহিলা সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। মানুষের সেবা করে তারা দোয়া ও ভালোবাসা অর্জন করেছেন। মানুষের মুখে মুখে তাদের ভালো ব্যবহার ও বিপদে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর গল্প ছড়িয়ে পড়ে। মায়ের মানবসেবা দেখেই আমরা তিন বোন মানুষের সেবা করার সিদ্ধান্ত নিই।
নাসিমা বেগম বলেন, এলাকার মানুষ আমাদের মন উজাড় করে ভোট দিয়েছেন। ব্যাপক ব্যবধানে নির্বাচিত করেছেন। এখন আমাদের কাজ প্রতিদিন এলাকার ঘরে ঘরে গিয়ে মানুষের সমস্যা শুনে তাদের পাশে দাঁড়ানো। সব সরকারি সুযোগ-সুবিধা তাদের পৌঁছে দেব। আমাদের তিন বোনের কৃষক স্বামীরা এই বিজয়ে রেখেছেন সক্রিয় ভূমিকা। আমাদের এমন বিজয়ে দারুণ খুশি আমাদের মা (আলেয়া বেগম)।
শাহনাজ পারভীন বলেন, আমরা জনগণের সেবায় নিয়োজিত থাকব। সুখে-দুঃখে তারা সব সময় আমাদের পাশে পাবে।
স্থানীয় ছাতনী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি দুলাল সরকার বলেন, তিন বোনের এমন বিপুল বিজয়ে সবাই উচ্ছ্বসিত। এলাকার সব শ্রেণি-পেশার মানুষ তাদের পাশে রয়েছেন। সব মানুষ তাদের ভোট দিয়েছেন। তারা ভালোভাবে তাদের দায়িত্ব পালন করবেন বলে আমি আশাবাদী।
নলডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী কর্মকার্তা (ইউএনও) সুখময় সরকার ঢাকা পোস্টকে বলেন, ইউপি নির্বাচনে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি বেশ ভালো ছিল। শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। একসঙ্গে তিন বোন নির্বাচিত হয়েছেন, ঘটনাটি খুবই চাঞ্চল্যকর। আমরা চাই নবনির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা সাধারণ মানুষদের পাশে দাঁড়াবেন।

error: Please Stop!!You can not copy this content becuase this site content is under protection. Thank You Itihas24 Developer Team