ঈশ্বরদীর সবশেষ নিউজ । ইতিহাস টুয়েন্টিফোর
ঢাকাশুক্রবার , ১৪ জানুয়ারি ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সৌর বিদ্যুৎ কেনা হবে ৮.১২ টাকা দরে

ঈশ্বরদীতে ৭০ মেগাওয়াট ক্ষমতার সৌর বিদ্যুৎকেন্দ্রের অনুমোদন

বিশেষ প্রতিবেদক
জানুয়ারি ১৪, ২০২২ ১২:৫৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

বছরের শুরুতেই ১২০ মেগাওয়াট ক্ষমতার দুই সৌর বিদ্যুৎ প্রকল্পের চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে সরকার, যেখান থেকে প্রতি ইউনিট বিদ্যুৎ কেনা হবে ৮ টাকা ১২ পয়সা দরে।

বুধবার সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে পাবনার ঈশ্বরদীতে ৭০ মেগাওয়াট ক্ষমতার একটি এবং ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় ৫০ মেগাওয়াট ক্ষমতার আরেকটি সৌর বিদ্যুৎকেন্দ্রের অনুমোদন দেওয়া হয়।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব সামসুল আরেফিন বৈঠকের পর সংবাদ সম্মেলনে জানান, বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (পিডিবি) প্রস্তাবে ঈশ্বরদী উপজেলায় ৭০ মেগাওয়াট (এসি) ক্ষমতার গ্রিড টাইড সোলার বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনের জন্য দিহান গ্রিন এনার্জি লিমিটেড, এইচআই কোরিয়া লিমিটেড ও পাবনা সোলার পাওয়ার লিমিটেডের কনসোর্টিয়ামকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

মোট ব্যয় ধরা হয়েছে এক হাজার ৮৪৩ কোটি ২০ লাখ টাকা। ২০ বছর মেয়াদি চুক্তিতে সরকার এ কেন্দ্র থেকে প্রতি ইউনিট বিদ্যুৎ ১০ দশমিক ১৫ সেন্ট বা ৮ টাকা ১২ পয়সায় কিনে নেবে।

আর ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় ৫০ মেগাওয়াট ক্ষমতার গ্রিড টাইড সোলার বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপন করবে ফ্রান্সের টোটাল এরান এসএ, নরওয়ের নরওয়েজিয়ান রিনিউয়েবলস গ্রুপ এএস এবং বাংলাদেশের আরবান সার্ভিস লিমেটেডের কনসোর্টিয়াম।

মোট ব্যয় ধরা হয়েছে এক হাজার ৩১৫ কোটি ২০ লাখ টাকা। ২০ বছর মেয়াদি চুক্তিতে এ কেন্দ্রের প্রতি ইউনিট বিদ্যুত সরকার কিনবে ১০ দশমিক ১৫ ইউএস সেন্ট বা ৮ টাকা ১২ পয়সা দরে।

ভোলায় ৪০ মেগাওয়াট ক্ষমতার গ্যাসভিত্তিক রেন্টাল বিদ্যুৎ কেন্দ্রের স্পন্সর কোম্পানি ভেঞ্চার এনার্জি রিসোর্স লিমিডেটের সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ আরও চার বছর বাড়ানোর প্রস্তাব অনুমোদন করা হয়েছে ক্রয় কমিটির সভায়।

বর্ধিত মেয়াদে প্রতি ইউনিট বিদ্যুতের সংশোধিত মূল্য হবে ৩ দশমিক ৩৯৭০ সেন্ট বা ২ টাকা ৭১৭৬ পয়সা, যা আগে ৩ দশমিক ৪৯ সেন্ট বা ২ টাকা ৭৯ পয়সা ছিল।

বৈঠকে পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের প্রস্তাবে ক্যাসেল কনস্ট্রাকশন ও পোলস অ্যান্ড কংক্রিট লিমিটেড ঢাকার জয়েন্ট ভেঞ্চারের কাছ থেকে ৩১ কোটি ৩৫ লাখ ৫৯ হাজার ৩৮৮ টাকায় ৩২ হাজার ৪০০টি এসপিসি পোল বা খাম্বা কেনার প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রতিটি খাম্বার দাম পড়ছে ৯ হাজার ৬৭৭ টাকা ৭৫ পয়সা।

শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ কেমিকেল ইন্ডাস্ট্রিজ কর্পোরেশনের (বিসিআইসি) প্রস্তাবে এ দিন আরব আমিরাত থেকে ২৪৬ কোটি ৭৭ লাখ ৬৬ হাজার ৮৩৫ টাকায় ৩০ হাজার টন বাল্ক গ্র্যানুলার (অপশনাল) ইউরিয়া সার, কাতার থেকে ২৪৬ কোটি ৭৭ লাখ ৬৬ হাজার ৮৩৫ টাকায় ৩০ হাজার টন বাল্ক প্রিল্ড (অপশনাল) ইউরিয়া সার আমদানির অনুমোদন দেওয়া হয়।

আরেক প্রস্তাবে বিসিআইসিকে মেসার্স দেশ ট্রেডিং কর্পোরেশনের কাছ থেকে থেকে ২৫ হাজার মেট্রিক টন রক ফসফেট ৮১ কোটি ৪৯ লাখ ৩১ হাজার ১২৫ টাকায় আমদানির অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

এদিন বৈঠকে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের একটি এবং কৃষি মন্ত্রণালয়ের দুটি প্রস্তাব টেবিলে উত্থাপন করা হলে সেগুলো অনুমোদন পায়।

error: Please Stop!!You can not copy this content becuase this site content is under protection. Thank You Itihas24 Developer Team