ঈশ্বরদীর সবশেষ নিউজ । ইতিহাস টুয়েন্টিফোর
ঢাকাসোমবার , ২৪ জানুয়ারি ২০২২

ঈশ্বরদীতে অস্ত্রসহ ৪ ডাকাত আটক, প্রাইভেটকার ভাংচুর

নিজস্ব প্রতিবেদক
জানুয়ারি ২৪, ২০২২ ২:১৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ঈশ্বরদীতে সংঘবদ্ধ চার ডাকাতকে অস্ত্র ও প্রাইভেটকারসহ আটক করেছে পুলিশ। সোমবার (২৪ জানুয়ারী) রাত ২টা ৪৫ মিনিটে উপজেলার মুলাডুলি ইউনিয়নের আড়পাড়া বটতলা এলাকায় এলাকাবাসী এদের আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। আটককৃতরা হলেন জনি আহম্মদ (২৭), মাহাবুব (৪০), বাচ্চু(২৭) ও রকি (২৬)। এরা সকলেই কুষ্টিয়া জেলার বাসিন্দা বলে থানার ওসি আসাদুজ্জামান আসাদ নিশ্চিত করেছেন।
ইউপি সদস্য তারা মালিথা জানান,এলাকায় গরু চুরির কারণে কিছুদিন যাবত এলাকাবাসী রাতে পাহারার ব্যবস্থা করে। ওই রাতেও প্রায় ১৭জন পাহারায় ছিল। পাহারারত গ্রামবাসীরা দেখেন, সোমবার গভীর রাত ৩টায় একটি কালো প্রাইভেটকার মুলাডুলির আড়পাড়া বটতলা এলাকায় এসে থামে। এসময় ডাকাত চক্রের এক সদস্য গাড়ী থেকে নেমে চারিপাশ দেখতে থাকে। তাদের চলাচল সন্দেহ মূলক হওয়ায় পাহারারত স্থানীয় বাসিন্দা নয়ন মোল্লা তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করতে তাদের দিকে এগিয়ে যায়। নয়নকে দেখে ডাকাতরা প্রাইভেটকার নিয়ে চলে যেতে থাকলে নয়নগতিরোধ করে সামনে দাড়ায়। এসময় ডাকাতরা আরআরপি ফিডমিলের গাড়ী বলে নয়নকে নিজেদের পরিচয় দিলে তাদের যেতে দেয়। কিন্তু ডাকাত সদস্যরা আরআরপি ফিডমিলে না ঢুকে দ্রুত পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে নয়ন আবারো তাদের গাড়ীর গতিরোধ করে এবং চিৎকার-চেঁচামেচি করতে থাকে। এতে গ্রামবাসীসহ অন্যান্য পাহারাদাররা এগিয়ে এসে তাদের প্রশ্ন করতে থাকেন। কিন্তু কথাবার্তা অসংলগ্ন মনে হওয়ায় ডাকাত দল বলতেই একজন দৌঁড়ে পালিয়ে যান। এই অবস্থায় ৪ সদস্যকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। এলাকাবাসী রিপন হোসেন জানান, সন্দেহের পর তাদের গাড়ীতল্লাশী করলে মধ্যযুগীয় অস্ত্র এবং একসেট অটো চাবি (যাহা যেকোন তালা খোলা যায়) পাওয়া যায়। এসময় গ্রামবাসী ডাকাতদের মারধর এবং ব্যবহৃত কালো প্রাইভেট কার ( কুষ্টিয়া গ-১১০০০২) ভেঙ্গে ফেলেন।খবর পেয়ে ঈশ্বরদী থানার ওসি (তদন্ত) হাদিউল ইসলাম এবং এসআইমুকুলসহ সঙ্গীয় ফোর্স ঘটনাস্থলে গিয়ে আহত অবস্থায়
ডাকাত সদস্যদের ৪ জনকে উদ্ধার করেন। প্রকৃতপক্ষেই এরা সংঘ বদ্ধডাকাত বলে হাদিউল জানিয়েছেন।
ঈশ্বরদী থানার ওসি আসাদুজ্জামান আসাদ জানান, এদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

error: Please Stop!!You can not copy this content becuase this site content is under protection. Thank You Itihas24 Developer Team