ঈশ্বরদীর সবশেষ নিউজ । ইতিহাস টুয়েন্টিফোর
ঢাকাবুধবার , ২৬ জানুয়ারি ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বারবার প্রকল্প সংশোধনে বিরক্তি প্রধানমন্ত্রীর

বিশেষ প্রতিবেদক
জানুয়ারি ২৬, ২০২২ ৭:৪৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

বারবার প্রকল্প সংশোধন নিয়ে বিরক্তি প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় তিনি বিরক্তি প্রকাশ করেন। শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত একনেক সভায় প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে সভাপতিত্ব করেন।
গতকাল একনেকে চার হাজার ৬২১ কোটি ৩৪ লাখ টাকা ব্যয়ে ১০টি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়। এগুলোর মধ্যে ৫টিই সংশোধন প্রকল্প। এরমধ্যে একটি প্রকল্প তৃতীয়বারের মতো সংশোধন প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়। প্রকল্পে বারবার সংশোধনের বিষয় তুলে প্রধানমন্ত্রী বিরক্তি প্রকাশ করেন বলে পরিকল্পনামন্ত্রী জানান।
এছাড়া একেনেক সভায় প্রধানমন্ত্রী হাওর এলাকায় পিলারের সাহায্য নিয়ে এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে নির্দেশ দেন।
সভাশেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা তুলে ধরে সাংবাদিকদের বলেন, ‘বাংলাদেশ কৃষিপ্রধান দেশ হওয়ায় আমাদের ইউরিয়া সারের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। কিন্তু সার উৎপাদন করতে গেলে প্রচুর গ্যাসের প্রয়োজন হয়। এর ফলে মাঝে মাঝে গ্যাসের সংকট দেখা দেয়। এজন্য একনেক সভায় অনেকে বিদেশে কারখানা করে সার উৎপাদনের বিষয়ে আলোচনা করেছেন।
একনেকে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য তুলে ধরে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘বারবার প্রকল্প সংশোধন করা হয়। আজ একনেক সভায় ১০টি প্রকল্প উপস্থাপন করা হয়, এরমধ্যে পাঁচটিই সংশোধিত।’ এভাবে বারবার সংশোধিত প্রকল্প একনেক সভায় আসছে বলে বিরক্তি প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী।
পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, সিলেট অঞ্চলে অনেক জমি পতিত। এসব জমির সঠিক ব্যবহার নিশ্চিত করতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী। পরিকল্পনামন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে একমত। সিলেট অঞ্চলে নানা কারণে অনেক জমি পতিত পড়ে আছে, কোনো ব্যবহার হয় না। জমিগুলো যেন ব্যবহার হয়, সেজন্য আমি সিলেটবাসীকে প্রধানমন্ত্রীর অভিপ্রায় জানিয়ে দেব।’
সভায় প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া বক্তব্য উদ্ধৃত করে তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, হাওরে যেখানে ছোট সেতু দরকার, সেখানে তা করতে হবে। যেন ঠিকমতো পানি চলাচল করতে পারে। চলাচল করা নৌকার কোনো প্রতিবন্ধকতা যেন সৃষ্টি না হয়। খুঁটি দিয়ে ছোট ছোট সেতু বানিয়ে ফেলতে হবে। হাওরে এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণ করতে হবে।’
সভায় কৃষি মন্ত্রণালয়ের দুটি প্রকল্প যথাক্রমে ‘ক্লাইমেট স্মার্ট এগ্রিকালচার অ্যান্ড ওয়াটার ম্যানেজমেন্ট’ প্রকল্প এবং ‘আধুনিক প্রযুক্তির মাধ্যমে সিলেট অঞ্চলের কৃষি উন্নয়ন’ প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়। প্রকল্প দুটি অনুমোদনের সময় সিলেটের হাওর অঞ্চলের কথা উঠে আসে।
অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, কৃষিমন্ত্রী মো. আব্দুর রাজ্জাক, স্থানীয় সরকারমন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম, শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন, স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক, পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলমসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীরা সভায় অংশগ্রহণ করেন।

error: Please Stop!!You can not copy this content becuase this site content is under protection. Thank You Itihas24 Developer Team