টাঙ্গাইলের সেই দুই ভাইবোনের চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন প্রধানমন্ত্রী » Itihas24.com
ঈশ্বরদী২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
ঈশ্বরদীর সবশেষ নিউজ । ইতিহাস টুয়েন্টিফোর
আজকের সর্বশেষ সবখবর

টাঙ্গাইলের সেই দুই ভাইবোনের চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন প্রধানমন্ত্রী

জেলা প্রতিনিধি
আগস্ট ২৬, ২০২২ ১:৩৪ অপরাহ্ণ
Link Copied!

গলায় জটিল রোগে আক্রান্ত টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার পিন্টু ও তার বোন নাসরিনের চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গতকাল বৃহস্পতিবার (২৫ আগস্ট) সকাল থেকে ঢাকার শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ডা. সামন্ত লাল সেনের অধীনে তাদের চিকিৎসা শুরু হয়েছে। ইনস্টিটিউটের ৮০১ নম্বর ওয়ার্ডের ৩০ নম্বর বেডে তাদের চিকিৎসা চলছে।

মির্জাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. ফরিদুল ইসলাম এবং অসুস্থ পিন্টু ও নাসরিনের ভাই শাহাদত হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পিন্টু মিয়া ও নাসরিন আক্তার টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার জামুর্কী ইউনিয়নের পাকুল্যা পূর্বপাড়া গ্রামের কৃষক সমেজ উদ্দিন ও সাহেদা বেগমের সন্তান।

এর আগে পিন্টু ও নাসরিনকে নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবর প্রকাশ হলে বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীর নজরে আসে। তিনি তাদের দুই ভাইবোনের চিকিৎসার দায়িত্ব নেন। পরে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের নির্দেশনায় দুই ভাইবোনকে টাঙ্গাইল থেকে রাজধানীর শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে নেওয়া হয়। সেখানে ভর্তির করার পর তাদের বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা শুরু হয়।

জানা গেছে, ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় জন্মগ্রহণ করেন পিন্টু মিয়া। তিনি জন্মের পর থেকেই অসুস্থ হয়ে পড়েন। তার ছোট বোন নাসরিন আক্তার (৪০) জন্মের তিন বছর পর অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাদের গলার আশপাশে বিশাল অংশজুড়ে গলগণ্ডের মতো স্ফীতি হয়। এছাড়া পিন্টুর একটি চোখও আক্রান্ত হয়। এর আগে বিভিন্ন সময় চিকিৎসক দেখিয়েও কোনো লাভ হয়নি তাদের।

শুক্রবার (২৬ আগস্ট) দুপুরে পিন্টু ও নাসরিনের ভাই শাহাদত হোসেন বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমার ভাই-বোনের চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়েছেন। সেই মোতাবেক বৃহস্পতিবার সকালেই ঢাকার শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে নিয়ে ভর্তি করা হয়েছে। ওইদিনই সকল ধরনের পরীক্ষা করা হয়েছে। ৮০১ নম্বর ওয়ার্ডের ৩০ নম্বর বেডে ভাইবোনের চিকিৎসা চলছে। রোববার কয়েকজন চিকিৎসককে নিয়ে বোর্ড গঠন করা হবে। টেস্টের রিপোর্টগুলো আসার পরই মূল চিকিৎসা শুরু হবে। তবে রোববার অথবা সোমবার থেকেই চিকিৎসা শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।

তিনি বলেন, এখানকার সকল চিকিৎসকই খুবই আন্তরিক। তারা খুব যত্ন নিয়ে ভাইবোনের চিকিৎসা করছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে কৃতজ্ঞ আমার ভাইবোনের চিকিৎসার ব্যবস্থা করার জন্য।

মির্জাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. ফরিদুল ইসলাম বলেন, বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবর প্রকাশ হওয়ার পরই মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহা-পরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মো. খুরশিদ আলম ওই দুই ভাইবোনের বিস্তারিত তথ্য চান। এরপরই শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের প্রধান সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেনও তাদের বিষয়ে খোঁজখবর নেন। এরপর দুজনকেই ওই দুই ভাইবোনের বিষয়ে তথ্য দেওয়া হয়। পরে বৃহস্পতিবার সকালেই দুই ভাইবোনকে ঢাকার শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে পাঠানো হয়। বর্তমানে সেখানে তাদের চিকিৎসা চলছে।

তিনি আরও বলেন, ১১-১২ জন চিকিৎসককে নিয়ে একটি মেডিকেল টিম গঠন করা হবে। বৃহস্পতিবারই তাদের সকল পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়েছে। রোববার অথবা সোমবার থেকেই তাদের মূল চিকিৎসা শুরু হবে। থাইরয়েড বা গলগণ্ড রোগ থেকে এ সমস্যা হয়েছে। সময় মতো সঠিক চিকিৎসা না পাওয়ায় রোগটি ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে।

বিজ্ঞাপন

BONOLOTA IT POS ads