ঈশ্বরদীতে ভালোবেসে বিয়ের ৬ মাসে লাশ : শাশুড়ি আটক, স্বামী পলাতক » Itihas24.com
ঈশ্বরদী১৪ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
ঈশ্বরদীর সবশেষ নিউজ । ইতিহাস টুয়েন্টিফোর

ঈশ্বরদীতে ভালোবেসে বিয়ের ৬ মাসে লাশ : শাশুড়ি আটক, স্বামী পলাতক

নিজস্ব প্রতিবেদক
আগস্ট ১৩, ২০২১ ১১:৩৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ঈশ্বরদী উপজেলা সদরের সাড়াঁগোপালপুর ইরকোন গেট এলাকায় মেঘলা খাতুন (১৮) নামে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে এই লাশ উদ্ধার ঘিরে কিছু রহস্য তৈরি হয়েছে। তাই ঘটনাটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা, পুলিশ তা নিশ্চিত হতে পারেনি।

পুলিশ জানায়, এ ঘটনার পর থেকে মেঘলার স্বামী আশিক ইসলাম পলাতক রয়েছেন। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার শাশুড়ি মুরশিদা খাতুনকে আটক করা হয়েছে। আশিক ঈশ্বরদী উপজেলা সদরের সাড়াঁগোপালপুর ইরকোন গেট এলাকার আশরাফুল ইসলামের ছেলে। আর মেঘলা খাতুন ঈশ্বরদী উপজেলার পাকশী ইউনিয়নের সিভিলহাট গ্রামের হাফিজুল ইসলামের মেয়ে। ছয়মাস আগে আশিকের সঙ্গে প্রেম করে বিয়ে হয় তার।

বৃহস্পতিবার (১২ আগস্ট) সকালে উপজেলার সদরের সাড়াঁগোপালপুর ইরকোন গেট এলাকার শ্বশুরবাড়ি থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

গৃহবধূর শ্বশুর আশরাফুল ইসলাম জানান, প্রতিদিনের মতো ঘটনার দিন বুধবার রাত ১১টার দিকে তার ছেলে ও বউ ঘুমিয়ে পড়ে। ঘুম থেকে জেগে তার ছেলে দেখেন ঘরের ফ্যানের সঙ্গে ঝুলে আছে মেঘলা। এ দৃশ্য দেখে তিনি হতবিহবল হয়ে চিৎকার করে।

পরে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে বিষয়টি দেখে থানায় খবর দেয়। পুলিশ এসে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে।

স্থানীয়রা জানান, প্রায় ছয় মাস আগে ভালোবেসে আশিক ও মেঘলার বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের দাম্পত্য জীবন বেশ ভালোই চলছিল। কিন্তু হঠাৎ রহস্যজনক কারণে মৃত্যু হলো মেঘলার।

গৃহবধূর বাবা হাফিজুল অভিযোগ করে জানান, আশিক আমার মেয়েকে নির্যাতন করে মেরে ফেলেছে। আত্মহত্যা বলে চালানোর জন্য লাশ ঝুলিয়ে রেখেছে।

এ বিষয়ে ঈশ্বরদী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফিরোজ কবির জানান, লাশের ময়নাতদন্ত করা হয়েছে। ওই গৃহবধূকে হত্যা করা হয়েছে এমন মৌখিক অভিযোগ তার পরিবার করেছে। এ কারণে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তার শাশুড়িকে আটক করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পাওয়ার পর পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

author avatar
SK Mohoshin

বিজ্ঞাপন

BONOLOTA IT POS ads