ঈশ্বরদী শহরের প্রবেশদ্বারে পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা শুরু করেছে ছাত্রলীগ » Itihas24.com
ঈশ্বরদী১৫ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
ঈশ্বরদীর সবশেষ নিউজ । ইতিহাস টুয়েন্টিফোর

ঈশ্বরদী শহরের প্রবেশদ্বারে পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা শুরু করেছে ছাত্রলীগ

রনজন ‍কুমার
ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২৪ ৭:৩৯ অপরাহ্ণ
Link Copied!

পাবনার ঈশ্বরদী শহরের প্রবেশদ্বার অরণকোলা হারুখালী মাঠের পরিত্যক্ত ভাগাড় এলাকা পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা শুরু করেছে ছাত্রলীগ।

শনিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ১১টায় পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযানের উদ্বোধন করেন পাবনা-৪ আসনের সংসদ সদস্য গালিবুর রহমান শরীফ। এসময় উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম খান, পৌরসভার মেয়র ইছাহক আলী মালিথা, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শিরহান শরীফ তমাল, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের আহবায়ক মাসুদ রানা, পৌর যুবলীগের সভাপতি আলাউদ্দিন বিপ্লব, সাধারণ সম্পাদক আরিফুল ইসলাম লিটন, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মল্লিক মিলন মাহমুদ তন্ময়, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি আবির হাসান শৈশব।

জানা যায়, ঈশ্বরদী পৌর শহরের প্রবেশ পথ ঈশ্বরদী-পাবনা মহাসড়কের অরণকোলা হারুখালী মাঠ এলাকায় প্রায় ২০ বছর পৌরসভা ময়লার ভাগাড় হিসেবে ব্যবহার করতো। ফলে শহরের প্রবেশের পথে দুঃসহ দুর্গন্ধে সড়কে চলাচলকারিদের দুভোর্গ পোহাতে হতো। গত বছরের শুরুতেই পৌর শহরের ফতেমোহাম্মদপুর ফাঁকা মাঠে নতুন ল্যান্ডফিল্ড ও ময়লার ভাগাড় নির্মাণের পর এখানে পৌরসভা ময়লা আবর্জনা না ফেললেও স্থানীয় বাসিন্দা ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে আবর্জনা রাতের আধাঁরে এখানে ফেলা হয়। ফলে দুভোর্গ কিছুটা রয়েই গেছে। এ দুভোর্গ থেকে সাধারণ মানুষকে স্বস্তি দিতে উপজেলা ও পৌর ছাত্রলীগের উদ্যোগে এখানে পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন অভিযান শুরু হয়েছে। পাশাপাশি এখানে আর কেউ যেন ময়লা আবর্জনা না ফেলে সেজন্য সাইনবোর্ড ও ফেস্টুন লাগানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি আবির হাসান শৈশব বলেন, শহরের প্রবেশ পথে দুর্গন্ধ দূর করতে পৌরসভা স্যানেটারি ল্যান্ডফিল ও ভাগাড় নির্মাণ করে এখান থেকে ভাগাড় অন্যত্র সরিয়ে নিয়েছে। কিন্তু কিছু ব্যক্তি রাতের আধাঁরে এখানে ময়লা-অবর্জনা ফেলে দুর্গন্ধের সৃষ্টি করছে। এতে পথচারিদের দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। সেজন্য ছাত্রলীগের উদ্যোগে এখানে পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন অভিযান শুরু হয়েছে। এখানকার ময়লা আবর্জনা পরিস্কার না হওয়া পর্যন্ত এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মল্লিক মিলন মাহমুদ তন্ময় জাগো নিউজকে বলেন, ঈশ্বরদী রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প ও ইপিজেডসহ বড় বড় শিল্প প্রতিষ্ঠান ও সরকারি স্থাপনা রয়েছে। এই শহরে প্রতিদিন দেশি-বিদেশী হাজার হাজার মানুষ আসে। অথচ শহরের প্রবেশ পথে ময়লা-আবর্জনা ও দুর্গন্ধ। এ সমস্যা থেকে শহরবাসী ও সাধারণ মানুষকে পরিত্রাণ দিতে ছাত্রলীগ এখানে পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা শুরু করেছে। পাবনা-৪ আসনের সংসদ সদস্য গালিবুর রহমান শরীফের উপস্থিতিতে পৌরসভার মেয়র ইছাহক আলী মালিথা আশস্ত করেছেন তিনি তার পরিচ্ছন্নকর্মী ও পরিস্কারের সরঞ্জাম দিয়ে আমাদের সহযোগিতা করবেন। যেভাবেই হোক আমরা দীর্ঘদিনের দুগর্ন্ধের জঞ্জাল থেকে শহরবাসীকে পরিত্রাণ দিতে চাই।

বিজ্ঞাপন

BONOLOTA IT POS ads